WhatsApp এর কোফাউন্ডার ব্রায়ান অ্যাকটন এবার খুলবেন ফাউন্ডেশন

হোয়াটসঅ্যাপের কো ফাউন্ডার ব‌্রায়ান অ্যাকটন ফেসবুক ছেড়ে অলাভজনক সংস্থা শুরু করতে চেলেছেন। খবরটা এখন শিরোনামে। 

0
নতুন ঝুঁকির পিছনে ছুটছেন হোয়াটসঅ্যাপের কো ফাউন্ডার ব‌্রায়ান অ্যাকটন। ফেসবুক ছেড়ে দিয়েছেন। এতদিনের প্যাশনের পিছনে দৌড়তে অলাভজনক সংস্থা শুরু করতে চেলেছেন। খবরটা এখন শিরোনামে। 

২০০৯ সালে জ্যান কউমের সঙ্গে হাতে হাত মিলিয়ে হোয়াটসঅ্যাপ শুরু করেছিলেন। তার আগে অ্যাকটন ফেসবুকে চাকরি পেতে আবেদন করেছিলেন। কিন্তু ফেসবুক তাকে প্রত্যাখ্যান করেছিল। এবার তাঁর পালা। ফেসবুক অধিগৃহীত হোয়াটসঅ্যাপের এই কো ফাউন্ডার এবার ফেসবুক ছাড়ছেন নিজের প্যাশনের ডাক শুনে। আর সম্প্রতি একটি ফেসবুকে স্ট্যাটাস আপডেট করে জানিয়ে দিয়েছেন তিনি সংস্থা ছাড়ছেন। তিনি চান জীবনে একটি নতুন অধ্যায় শুরু করতে। একটি অলাভজনক সংস্থা তৈরির মধ্যে দিয়ে অ্যাকটন তাঁর স্বপ্ন সফল করতে চান। তিনি লিখছেন, "আমি খুব ভাগ্যবান যে এই বয়সে আমার আবেগের প্রতি দৌড়নর জন্যে এবং নতুন ঝুঁকি নেওয়ার সুযোগ রয়েছে। প্রযুক্তি এবং যোগাযোগ ব্যবস্থার আঙিনায় অলাভজনক কিছু করার ইচ্ছে ছিলই এবার সেই সিদ্ধান্তই নিয়ে ফেললাম। যা আমি অনেক দিন ধরেই ভাবছিলাম। এবার সময় এসেছে সেটা কার্যকর করার। এবং সেই কাজেই মনোনিবেশ করার। আপনাদের সঙ্গে শেয়ার করার মতো অনেক কিছুই থাকবে আগামী দিনে।" তিনি স্বীকার করে নিয়েছেন যে এই সিদ্ধান্তটা খুব একটা সোজা ছিল না। হোয়াটসঅ্যাপের টিম ওয়ার্কটা খুব ভালো ছিল। এবং তিনি এটা দেখেও খুবই খুশি যে এত মানুষ হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহার করছেন, ভালবাসছেন। প্রসঙ্গত, ২০১৪ সালে ফেসবুক হোয়াটসঅ্যাপকে অধিগ্রহণ করে। একহাজার নয়শো কোটি মার্কিন ডলারের সেই ডিলে নগদ চারশ কোটি ডলার যেমন ছিল তেমনি ছিল একহাজার দুশ কোটি ডলারের স্টক আর তিনশ কোটি ডলারের আর এস ইউ। রিকোডের রিপোর্ট অনুযায়ী অ্যাকটনের প্রাপ্য সাড়ে ছয়শ কোটি মার্কিন ডলার। এর আগে অ্যাকটন ইয়াহুতে কাজ করেছেন। চাকরি ছাড়ার পর ফেসবুকে চেষ্টা করেন। কিন্তু ফেসবুক তাঁকে ইন্টারভিউ বোর্ড থেকে পত্রপাঠ বিদায় করে দিয়েছিল। ট্যুইটারও তাঁকে চাকরি দেয়নি। এই প্রযুক্তিবিদ তো বসে থাকার পাত্র ছিলেন না। বন্ধু জ্যান কউমের সঙ্গে যুক্ত হয়ে শুরু করেন তাঁর নিজের সংস্থা হোয়াটসঅ্যাপ। স্মার্টফোনে বিনে-পয়সায় ইনস্ট্যান্ট ম্যাসেজিং সার্ভিস। গোটা দুনিয়ায় যার একশ তিরিশ কোটি ব্যবহারকারী রয়েছেন।