৮০ বছরেরও বেশি সময় চিকিত্সা পরিষেবায় ড. মেহেতা’স

0

মেহতা হসপিটাল, চেন্নাইয়ের ৮০ বছরেরও বেশি পুরোনো এই প্রতিষ্ঠান চিকিত্সা পরিষেবার ক্ষেত্রে উল্লেখযোগ্য নাম। প্রতিষ্ঠানের সিইও সমীর মেহতা একাধারে চেন্নাই এঞ্জেলের বিনিয়োগকারী, ব্যবসায় পরামর্শদাতা, বি-স্কুলের শিক্ষক, স্টার্টআপদের মেন্টর, তবে নিজের প্রতিষ্ঠানের খুঁটিনাটিতে নজর থাকে তাঁর। ইওরস্টোরির সঙ্গে স্বল্প কথোপকথনে তিনি জানালেন, স্বাস্থ্য পরিষেবায় চিকিত্সার সঙ্গে যুক্ত মানুষরা কী ভাবে তাঁদের জীবনের একটা বড় অংশ ব্যয় করেন। এবিষয় ড.এ.এন পার্থসারথির কথা উল্লেখ করেন তিনি, ড. পার্থসারথি ৫০ বছর এই হাসপাতালের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন। সাম বললেন, ওঁনার মৃত্যুর পর পরিবার ওঁনার যে সমস্ত ছবি ও ভিডিও দেখায় তার সবকটিই এই হাসপাতালে।


সমীর মেহতা
সমীর মেহতা

হাসপাতালের সঙ্গে যুক্ত মানুষেরা

আমার মনে হয় যারা এই যাত্রার শরিক তাঁদের প্রত্যেককে ধন্যবাদ জানানো উচিৎ। পৃথিবীর বিভিন্ন জায়গায় নানা লোভনীয় সুযোগ থাকা স্বত্ত্বেও প্রচুর ক্লিনিসিয়ান, চিকিত্সক, নার্স, কারিগরী ও অন্যান্য স্বাস্থ্যকর্মীরা তাঁদের একটা বড় সময় এই হাসপাতালের জন্য ত্যাগ করেছেন। যাঁদের সঙ্গে কাজ করছি তাঁদের সম্মান দেওয়া ও তাঁদের সুবিধার দিকে নজর দেওয়া গুরুত্বপূর্ণ। আমরা বড় কর্পোরেট হাউস নই। আমরা ক্লিনিসিয়ানদের কোনো লক্ষ্যমাত্রা ঠিক করে দিই না। আমরা বলি না আপনাকে এত সংখ্যক কেস দিতে হবে, এত সংখ্যক পরীক্ষা করতে হবে, স্বাস্থ্য পরিষেবায় সেটা ঠিক নয়। সঠিক পথটি হল গ্রাহকদের দেখাশোনার জন্য টেকনিশিয়ান ও পার্টনারদের সঙ্গে সময় কাটানো।

গ্রাহক

গ্রাহকরা পরিবর্ধিত পরিবারের অংশ, এটা যাতে তাঁরা অনুভব করেন সেটা দেখতে হবে। আমরা তাঁদের সঙ্গে সময় কাটাই যাঁরা জীবনের একটা কঠিন পরিবর্তনের সময় দিয়ে যাচ্ছেন, আরও কঠিন যাত্রায়। শহরের অন্যতম সবথেকে বড় শিশু-জন্মের কেন্দ্র আমাদের এই হাসপাতাল। ব্যক্তিগত ছোঁয়া খুব প্রয়োজন এখানে। স্বাস্থ্য পরিষেবায় অনেক নতুন সংস্থা এমন সব পরিষেবার কথা বলে যা আসলে তাদের নেই, এটা খুবই দুর্ভাগ্যজনক। আমরা সবসময় সেই সুবিধাগুলির কথাই বলেছি যেগুলি আমাদের রয়েছে। আমরা সবসময় সৎ থাকি, আর ক্লিনিসিয়ানই সবথেকে বেশি ঝামেলা পোহান।

আমরা ড. মেহতা’স থেকে কখনও কাউকে ফিরিয়ে দিই না। আমদের টার্গেট অডিয়েন্স চেন্নাই এবং সমগ্র তামিলনাড়ুর মধ্য আয়ের মানুষরা। অন্ধ্রপ্রদেশ, ওড়িশা, আসাম ও উত্তর-পূর্ব ভারত থেকে রোগীরা আমাদের এখানে আসেন। এমন কী ইউএস, আফ্রিকা থেকেও রোগীরা আসেন তবে তাঁরা কখনোই আমাদের প্রাথমিক গ্রাহক নন। প্রাথমিক গ্রাহকরা আমাদের সামনেই আছেন, এই শহরেরই কেউ। আমরা আপনার যত্ন নেব ও আমাদের সবথেকে ভালটা দেব। আমরা একটা নিখুঁত পৃথিবী দিতে পারব না, কারণ অনেক সময় আপনি আপনার জীবনের সবথেকে কঠিন দিনে আমাদের কাছে আসবেন, আমরা সেই সময় আপনাকে সাহায্য করার চেষ্টা করব।

পরিবার

একটি পরিবারে চার প্রজন্মের মানুষ আপনার হাসপাতালে জন্মেছে, এটা একটা সম্পূর্ণ অন্যরকন অনুভুতি। কারণ এটা খুব কঠিন, আমার বেশ খানিকটা সময় লেগেছিল এটা বুঝতে। সত্যি কথা বলতে আমি ম্যাকিনসে এন্ড শেল ও অন্যান্য বড় কোম্পানিতে কাজ করে এসেছি, এখানে আমি দেখি কর্মীরা রোজ খুব প্রাথমিক স্তরে কাজ করেন, বিশেষত নার্স, টেকনিশিয়ান ও বরিষ্ঠ কনসালট্যান্ট চিকিত্সকরা, যারা পৃথিবীর অনেক জায়গায় অনেক কিছু করতে পারতেন। আমাদের টেকনিশিয়ান, নার্স ও কর্মীরা এবং তাঁদের পরিবার যাঁরা তাঁদের রোজ হাসি মুখে কাজে আসতে অনুপ্রাণিত করে, এটা সহজ নয়। পরিবারই হল সবথেকে বড় রহস্য।

অনুবাদ – সানন্দা দাশগুপ্ত