আরও সুরক্ষিত স্যানিটারি প্যাড বানালো IIT-Hyderabad

0

মহিলাদের জন্য সুখবর। হায়দরাবাদ আইআইটি-র একদল ইঞ্জিনিয়ার আবিষ্কার করেছেন এমন এক উন্নত ধরনের স্যানিটারি ন্যাপকিন যা ন্যানো-ফাইবার দিয়ে তৈরি। এর ফলে মহিলাদের স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিরাপদ হতে চলেছে। জরায়ুর ক্যান্সার হওয়ার সম্ভাবনা প্রায় থাকছেই না। এই দাবি করেছেন হায়দরাবাদ আইআইটি-র গবেষক ইঞ্জিনিয়াররা।

বর্তমানে বাজারে যে স্যানিটারি ন্যাপকিনগুলি পাওয়া যায়, সেগুলিতে বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই পলিমার জাতীয় উপকরণ ব্যবহার করা হয়ে থাকে। বাজারে সুলভে পাওয়া যাওয়ায় এই ধরনের স্যানিটারি ন্যাপকিনই সাধারণভাবে এদেশের মহিলারা ব্যবহার করে থাকেন। কিন্তু, পলিমার স্বাস্থ্য সুরক্ষার পক্ষে মোটেও নিরাপদ নয়। নানা ধরনের অসুখ হতে পারে। এমনকি জরায়ুর ক্যান্সার পর্যন্তও।

নতুন ধর‌নের এই স্যানিটারি ন্যাপকিন মহিলাদের স্বাস্থ্য সুরক্ষায় বিপ্লবই ঘটাল বলা যেতে পারে। আইআইটি হায়দরাবাদের কেমিক্যাল ইঞ্জিনীয়ারিং বিভাগের অধ্যাপক চন্দ্রশেখর শর্মা বলেছেন, আমি ও আমার অধীনে কাজ করা গবেষকরা অবশেষে সাফল্য পেয়েছি। গবেষনার ফলাফলে মেয়েদে‌র স্বাস্থ্য সুরক্ষিত করতে পারা গিয়েছে। আমাদের তৈরি স্যানিটারি ন্যাপকিনে ব্যহহৃত ন্যানো ফাইবারের শোষণ ক্ষমতা অনেকাংশেই বেশি। বাজার চলতি ন্যাপকিনগুলি ব্যবহার করে মেয়েরা ক্যান্সার ছাড়াও টক্সিক শক সিনড্রোমের শিকার হচ্ছেন। এই দুর্ভাগ্য থেকেও মেয়েরা এবার রেহাই পেতে চলেছেন।

আর কিছুদিনের ভিতরই মেয়েরা হাতের কাছে পাবেন এক স্বাস্থ্যকর বিকল্প। অধ্যাপক চন্দ্রশেখর জানিয়েছেন, ন্যানোফাইবার মূলত সেলুলোজভিত্তিক। যা পলিমারের থেকে একশো শতাংশ নিরাপদ।‌ স্যানিটারি ন্যাপকিনকে পলিমারমুক্ত করতে চেয়ে আমরা গবেষনা চালিয়েছিলাম।

শেষপর্যন্ত ক্ষতিকর পলিমারকে বিদেয় করা গিয়েছে। আর তৈরি করা গিয়েছে পরিবেশ-বান্ধব স্যানিটারি ন্যাপকিন। আর কিছুদিনের ভিতরই বাজারে মিলবে নতুন গবেষনার এই ফসল।