ই-কমার্স স্টার্টআপের ২০১৫-র রেজাল্ট আউট

0

মোবাইল কমার্স সংক্রান্ত আমার ২০১৪’র পোস্টের ধারাবাহিকতায়, এবছর আমি চারটি বৃহৎ সংস্থার গতিবিধি তালিকাভুক্ত করেছি। সময়ের অভাবেই আমি চারটির বেশি সংস্থার দিকে নজর রাখতে পারিনি। ডিসেম্বর ২০১৪ তে আমি এটা প্রকাশ করেছিলাম -

সংস্থাগুলির সমন্ধে উপলব্ধ পরিসংখ্যান থেকে পাওয়া তথ্যের উপর নিজস্ব ফর্মূলা প্রয়োগ করে আমি নিচের তালিকাগুলি প্রস্তুত করেছি। এছাড়াও বিভিন্ন জনপ্রিয় অ্যাপ স্টোর অ্যানালিসিস প্লাটফর্ম থেকে পাওয়া সমস্ত রকম ‘ফ্রি ডেটা সোর্স’ ব্যবহার করেছি। নিচের তালিকাগুলি কেবলমাত্র সেইসব অ্যানড্রয়েড অ্যাপের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য, যাদের IMO মোট অ্যাপ ট্রাফিকের ৮৫ শতাংশ।

গত ছয় মাসে হওয়া ডাউনলোডের সংখ্যা (প্রায়)

ফ্লিপকার্টের ব্যবসা দুইগুণ বৃদ্ধি পেয়েছে

অর্থাৎ পুরানো গ্রাহকরা আবার ফিরছেন

দ্বিতীয় মাসে গ্রাহকদের ধরে রাখাটাই সবচেয়ে বড় ভাবনার বিষয়

গ্রাহকরা যতোটা সময় অ্যাপ ব্যবহার করছেন

Amazon এর Daily Active User এর সংখ্যা সবথেকে কম

আজ অবধি হওয়া মোট ইন্সটলেশানের পরিমাণ

Snapdeal এর MAU সবচেয়ে কম

রিচার্জ অর্ডার উপলব্ধ থাকায় এই নিরীখে Paytm ই সবথেকে বেশি সফল।

বিগ বিলিয়ন ডে'তে Whatsapp/Facebook কে ছাপিয়ে গিয়ে flipkart হয়ে উঠেছিল ভারতের সর্বাধিক ব্যবহৃত অ্যাপ

অক্টোবর ডিল থেকে Snapdeal ও লাভবান হয়েছে

মে মাস নাগাদ ব্যাপক মোবাইল ক্যাম্পেনের ফলে Amazon সামগ্রিকভাবে শীর্ষস্থানে উঠে আসে

ভ্যানিটি মেট্রিক এর মত অ্যাপ র‍্যাঙ্ক নিয়ে Paytm বিশেষ ভাবিত নয় বলেই মনে হচ্ছে আপনাদের মতামত জানার অপেক্ষায় রইলাম। আমাকে টুইটারে (@deepakabbot) ট্যাগ করতে পারেন কিংবা ইমেল করতে পারেন এই অ্যাড্রেসের - dabbot@gmail.com।

(লেখক - দীপক অ্যাবট, অনুবাদ - সন্মিত চ্যাটার্জী)