FlicksTree তে টাকা ঢাললেন সৌরভ

1

মুম্বাইয়ের একটি স্টার্টআপে বিনিয়োগ করলেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়। এগিয়ে বাংলার মঞ্চ থেকেই স্টার্টআপদের কাছের মানুষ হয়ে ওঠেন দাদা। তাঁর ব্যক্তিগত দুর্দান্ত সাফল্য এবং টেলিভিশনের পর্দায় প্রেরণাদায়ী উপস্থিতিই তাঁকে অন্যরকম ভাবে ব্র্যান্ডিং করেছে। এবার স্টার্টআপে বিনিয়োগ করে উদ্যোগের দুনিয়ায় আরও একবার ঢুকে পড়লেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়। এর আগে ২০০৪ সালে সৌরভ এবং তাঁর দাদা স্নেহাশিস গঙ্গোপাধ্যায় শুরু করেছিলেন তাঁদের রেস্তোরাঁ 'সৌরভস দ্য ফুড প্যাভিলিয়ন'। পার্ক স্ট্রিট চত্বরে সেই রেস্তোরাঁ দেখতে দূর দূরান্ত থেকে লোক আসত। শুধু দাদাকে দেখার তাগিদেই লাইন দিয়ে দাঁড়িয়ে থাকতেন ভক্তেরা। তবে সেই উদ্যোগ শেষ পর্যন্ত সাফল্য পায়নি। ২০১১ সালে সেটি বন্ধ হয়ে যায়। মাঝখানের এই ছয়টি বছর ক্রিকেট, ক্রিকেট ম্যানেজমেন্ট এবং অ্যাঙ্কারিং নিয়ে ব্যস্ত ছিলেন সৌরভ। এবার আরও একবার সরাসরি ঢুকে পড়ছেন ব্যবসার দুনিয়ায়। মুম্বাইয়ের ভিডিও স্ট্রিমিং স্টার্টআপ ফ্লিকস্‌ট্রি তে বিনিয়োগ করছেন তিনি। একটি সাক্ষাৎকারে সৌরভ জানিয়েছেন, এই উদ্যোগের শুরু থেকেই তিনি যুক্ত হচ্ছেন এই স্টার্টআপের সঙ্গে। বিনিয়োগ তো আছেই পাশাপাশি এই স্টার্টআপের ব্র্যান্ডিংয়ের দিকটাও দেখবেন দাদা। জানা গেছে সিড রাউন্ডে ফ্লিকস্‌ট্রি মুম্বাইয়ের একটি ভেঞ্চারফান্ড সংস্থা, ভেঞ্চার ক্যাটালিস্টের কাছ থেকে আনুমানিক তিন কোটি টাকা পেয়েছে। সৌরভ ছাড়াও এই রাউন্ডে টাকা ঢেলেছেন কলকাতার আদিত্য গ্রুপের অনির্বাণ আদিত্য এবং অঙ্কিত আদিত্য এবং মোক্ষ স্পোর্টস ভেঞ্চার নামে একটি সংস্থা।

তবে বিনিয়োগকারী হিসেবে সৌরভের এটাই প্রথম বিনিয়োগ। এবং এই বিনিয়োগের মধ্যে দিয়ে সৌরভ চলে এলেন এমন একটি ক্লাবে যেখানে আগে থেকেই হাজির যুবরাজ সিং, অমিতাভ বচ্চন, সলমন খান, এ আর রহমান, করিশমা কাপুর, ঋত্বিক রোশন, সুজান, মালাইকা অরোরা খান, বিপাশা বাসু, ডিনো মোরিয়া, শিল্পা শেট্টি এমনকি সানি লিওনে।

প্রসঙ্গ Flickstree

সংস্থার কর্ণধার সৌরভ সিং সিইও, রাহুল জৈন চিফ অপারেটিং অফিসার এবং নগেন্দ্র সাংরা চিফ টেকনিকাল অফিসার ২০১৪ সালে এই স্টার্টআপের সূচনা করেন। মূলত বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রকাশিত ভিডিও এই প্লাটফর্মে দেখার সুযোগ থাকে। ইউটিউব থেকে শুরু করে যেকোনও ব্লগ এবং সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রকাশিত জনপ্রিয় ভিডিওর একটি সংকলন পাওয়া যায়। পাশাপাশি নিজের পছন্দ অনুসারে ভিডিও ফিড ও পেতে পারেন ব্যবহারকারী। নতুন ভিডিও প্রকাশিত হলে ব্যবহারকারীর আচরণ অনুমান করে নোটিফিকেশনও পাঠায় ফ্লিকস্‌ট্রি। আপনি চাইলে উইশ লিস্ট ও তৈরি করতে পারেন। যখন সেই কনটেন্ট ইন্টারনেটে প্রকাশিত হয় তখনও নোটিফিকেশন পাবেন আপনি। আপনি আপনার রিলিজ হওয়ার আগেই একটি মুভি ক্যালেন্ডার তৈরি করতে পারেন। এবং মুভি রিভিউও আপনার প্রয়োজনে সাজিয়ে রাখে এই ভিডিও স্ট্রিমিং সাইট।

কর্ণধার সৌরভ সিং এবং রাহুল জৈন এর আগে এশিয়ান পেইন্টসে কাজ করেছেন। এবং নগেন্দ্র সাংরা ছিলেন স্টক মার্কেট সফ্‌টঅয়্যার সংস্থা প্রিমিয়ার ট্রেড এবং সাংরানেট টেকনোলজিতে। ২০১৬ সালে আনুষ্ঠানিকভাবে এই সংস্থা চালু হয়। ইতিমধ্যেই দারুণ ট্র্যাকশন পেয়েছে ফ্লিকস্‌ট্রি।