অনূর্ধ্ব দশ CEO 'হ্যাক কিং' রুবেন

0

চশমা চোখে যিনি বক্তব্য রাখছেন তার বয়স মাত্র নয়। উচ্চতা সাড়ে চার ফুট। আর উল্টোদিকে বসে যাঁরা শুনছেন তাদের মধ্যে রয়েছেন বিজনেস লিডার, সাইবার সিকিউরিটি, হ্যাকিং ও অ্যাপ ডেভেলপমেন্ট বিশেষজ্ঞরা। বক্তার নাম রুবেন পল। থাকেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাসের অস্টিনে। বর্তমানে থার্ড গ্রেডের পড়ুয়া। এই বয়সেই তিনি Prudent Games (একটি গেম ডেভেলপমেন্ট কোম্পানি)-এর চিফ এক্সিকিউটিভ অফিসার (সিইও)। কিন্তু এই বালকের কী এমন রয়েছে যার জন্য এত কদর?

চাইল্ড প্রডিজি বলতে যা বোঝায় রুবেন খানিকটা তাই। স্মার্টফোন কিংবা কম্পিউটারের সিকিউরিটি ভেদ করে অনায়াসে ঢুকে পড়তে পারেন এই বালক হ্যাকার। তবে কোনও খারাপ উদ্দেশ্যে নয়। সাইবার সিকিউরিটি কতটা জরুরি সেটাই জনসাধারণকে বোঝাতে চান রুবেন। iDigitalTimes-কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে রুবেন বলেছেন, "ইন্টারনেটে সাইবার-বুলিইং, ডেটা চুরি-সহ বিভিন্ন ধরনের সাইবার-আক্রমণ হয়ে থাকে। এর হাত থেকে অল্পবয়সিদের রক্ষা করতে তাদের শিক্ষিত করে তুলতে হবে। যাতে তারা নিজেরাই সাইবার-হামলা প্রতিহত করতে পারে।"

Ground Zero Summit, 2015-এ যোগ দিতে সম্প্রতি ভারতে এসেছিলেন রুবেন। সেখানেই বসেছিল বিশ্বের অন্যতম বৃহৎ হ্যাকার কনফারেন্স। সেই হ্যাকার কনফারেন্সে অন্যতম বক্তা ছিলেন রুবেন। স্পাইডারম্যানের ভক্ত এই খুদে হ্যাকার সেখানে বলেছেন," হ্যাকিংয়ে তুখোড় হলে আপনি ক্ষমতার অধিকারী হবেন ঠিকই। কিন্তু তার থেকেও বড় কথা এই ক্ষমতার সঙ্গেই থাকবে দায়বদ্ধতা।" হ্যাকিং ও সাইবার সিকিউরিটি নিয়ে বক্তব্য রাখতে দেশে-দেশে যাওয়াটা এখন রুবেনের কাছে রুটিন হয়ে দাঁড়িয়েছে।

পড়াশোনার পাশাপাশি নিয়মিত জিমনাস্টিক ও সাঁতার প্রশিক্ষণ নিয়ে থাকে রুবেন। বাড়ির লোক ও বন্ধুবান্ধবদের সঙ্গে সময় কাটানো তার খুবই পছন্দের। এক সময় আমেরিকার Most Beautiful Baby-র শিরোপাও উঠেছিল তার মাথায়। রুবেনের ঝুলি এখানেই শেষ নয়। সর্বকনিষ্ঠ আমেরিকান হিসাবে শাওলিন ডো কুংফুতে ব্ল্যাক বেল্ট পেয়েছে সে। কিন্তু বড় হয়ে সে কী হতে চায়? উত্তরটা বেশ মজা করেই দিয়েছে রুবেন। দিনের বেলায় সে একজন বিজনেসম্যান হতে চায়, আর রাতে সাইবার স্পাই!

(Think Change India)