দেশীয় স্টার্টআপের সাহায্যে এবার নরওয়ের সংস্থা পেট্রোলিয়ামসফ্‌ট

0

ভারতের স্টার্টআপ মানচিত্রে ইতিবাচক বদল আনার লক্ষ্য নিয়ে ভারতের তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবসাক্ষেত্রে দীর্ঘমেয়াদি আর্থিক ও কারিগরি সহায়তা দেবার জন্য একটি নরওয়ে কেন্দ্রিক পেট্রোলিয়াম সংস্থা ভারতে কাজ করছে এবং দ্রুত বাড়িয়ে তুলছে তাদের কাজের পরিসর। এই সংস্থার নাম পেট্রোলিয়ামসফ্‌ট এএস - যা ভারতের আইটি স্টার্টআপগুলিকে দীর্ঘমেয়াদিভাবে আর্থিক, ও কারিগরি সহায়তা দিচ্ছে ও পাশে দাঁড়াচ্ছে এই উদ্যোগগুলির।


এই পরিকল্পনার অংশ হিসাবে ক্লাব-ভিত্তিক মেম্বারশিপ, মেন্টরশিপ ও সিড ফান্ডিং এর ব্যবস্থা করা হচ্ছে। প্রাথমিক পর্যায়ের কাজ শুরু হয়েছে গত নভেম্বর মাসে, নয়ডায় ‘স্টার্টআপ আন্তপ্র্যানরস’ গড়ে তোলার মধ্যে দিয়ে। পেট্রোলিয়ামসফটের একটি সহ-সংস্থা, ওয়েসমার্টি ইনফোটেক স্টার্টআপ আন্তপ্র্যানরে ইতিমধ্যেই বিনিয়োগ করেছে ৮০ লক্ষ টাকা, জানালেন নরওয়েজিয়ান এই সংস্থার প্রতিষ্ঠাতা রামেশ্বর পাসওয়ান।

“আমাদের নয়ডা সেন্টারে কাজ শুরু হয়ে গেছে এবং আমরা এখন গুড়গাঁওতে একটা সেন্টার তৈরি করছি। আগামী কয়েকবছরের মধ্যে আমরা বেঙ্গালুরু, মুম্বাই, পুণে, জয়পুর, কলকাতা এবং চেন্নাইতেও সেন্টার তৈরি করব,” জানালেন স্ট্যাভেঞ্জার নিবাসী পাসওয়ান। “আমাদের পরিকল্পনা হল অন্যান্য বিষয়ের পাশাপাশি আরো বেশিসংখ্যক স্টার্টআপ এবং দেশীয় ও বিদেশী পেশাদার কর্মীকে নিজেদের পরিধিতে নিয়ে আসার মধ্যে দিয়ে ভারতের স্টার্টআপ পরিসরকে মজবুত করার,” বললেন তিনি।

স্টার্টআপ আন্তপ্র্যানরের কাজের পরিসর দ্রুত বেড়ে ওঠার প্রসঙ্গে বলতে গিয়ে তিনি জানিয়েছেন যে, “বিশ্বের বিভিন্ন অংশ যেমন ভারত, নরওয়ে, ইউএস, ও দক্ষিণ আফ্রিকার মত জায়গা থেকে অনেক মানুষ আমাদের সাথে যুক্ত হবার জন্য আগ্রহ প্রকাশ করছেন।” স্টার্টআপ আন্তপ্র্যানরস এই মুহুর্তে তাদের কাজের পরিধি শুধু ভারত ও নরওয়ের মধ্যে সীমাবদ্ধ রাখলেও ইউকে, ইউ এস ও মধ্যপ্রাচ্যের একাধিক পেশাদার কর্মীর সাথে দ্রুত যোগাযোগ গড়ে উঠছে।

“আন্তপ্র্যানরশিপের অর্থ শুধু স্বপ্ন দেখা, পরিকল্পনা করা বা সেই পরিকল্পনাকে কেন্দ্র করে ব্যবসা গড়ে তোলা নয়,” বললেন পাসওয়ান। ওনার মতে, নিজের “বহু পরিকল্পিত ভাবনা”কে বাস্তব করার জন্য বহুবিধ দক্ষতা ও আর্থিক এবং বাজারগত সহায়তার প্রয়োজন হয়। বিশ্বজুড়ে যত স্টার্টআপ গড়ে ওঠে, তার মধ্যে নব্বই শতাংশই যে ব্যর্থ হয় এই বিষয়ে পাসওয়ান ওয়াকিবহাল। কিন্তু তিনি আশ্বাস দিয়েছেন যে, তাঁদের স্টার্টআপ আন্তপ্র্যানরের মেন্টরশিপ নির্ভর কাঠামো তৈরি করাই হয়েছে নতুন উদ্যোগ গড়ে তোলা ও সেগুলোকে সাহায্য করার জন্য।



সংবাদ সূত্র – প্রেস ট্রাস্ট অফ ইন্ডিয়া

অনুবাদ – সন্মিত চ্যাটার্জী