নজির গড়ল আলিবাবা, চিনে চনমনে ই কমার্স

0

বিশ্বরেকর্ড করল আলিবাবা। চিনের সবথেকে বড় অনলাইন শপিং দিবস, ‘অ্যানুয়াল সিঙ্গলস ডে’ তে ১৪.৩৩ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের পণ্য বিক্রি করে চিনের ই-কমার্স দুনিয়ার বিগবস ‘আলিবাবা’ রীতিমত বিশ্বরেকর্ড করে ফেলল। বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম এই অর্থনীতি ২০০৯ এর পর থেকেই মন্দার শিকার। কিন্তু ইকমার্সে তার লেশমাত্র প্রমাণ নেই। আলিবাবার ঘটনাটাই তার প্রমাণ।

চিনের মোট খুচরো ব্যবসার আট শতাংশ নিজেদের দখলে রাখা আলিবাবা জানিয়েছে এইবছর ‘অ্যানুয়াল সিঙ্গলস ডে’ এর ব্যবসা ছাপিয়ে গিয়েছে গত বছরের ৫৭.১ বিলিয়ন ইউয়ান (১০ বিলিয়ন মার্কিন ডলার) মূল্যের বিক্রিকে। আমেরিকার ‘সাইবার মানডে’ এর মত চীনের অনলাইন বিক্রয় দিবস এই ‘অ্যানুয়াল সিঙ্গলস ডে’ তে আলিবাবার পাশাপাশি JD.com, সানিং কমার্স গ্রুপ এর মত অনলাইন সংস্থাগুলিও প্রচুর পণ্যসামগ্রী বিক্রি করেছে।

চিনের বাসিন্দারা বছরের এই সময়টাতেই নানান অফারে, খুব কম দামে বিক্রি হওয়া যাবতীয় নিত্যপ্রয়োজনীয় গৃহস্থালীর সামগ্রী কিনে ফেলেন। ‘সানিং কমার্স গ্রুপ’ এর ভাইস চেয়ারম্যান সান উইমিন জানিয়েছেন যে সিঙ্গলস ডে শুরু হবার ১১ ঘন্টার মধ্যেই ৩৭০০০ মার্কিনি ‘হেলথ প্রোডাক্ট’ এর অর্ডার চলে এসেছিল। এছাড়া সংস্থার তরফ থেকে জানানো হয়েছে সন্ধ্যে ছ’টার মধ্যে জমা পড়েছিল ২.২০ লাখ Xiaomi স্মার্টফোন, ৩.৮০ লক্ষ ডিউরেক্স কন্ডোমের বাক্স ও প্রায় একই সংখ্যক মোবাইল পাওয়ার চার্জারের অর্ডার।

আলিবাবা’র এক্সিকিউটিভ চেয়ারম্যান জ্যাক মা মনে করেন, চিনের আভ্যন্তরীণ বাজারের চাহিদা যে ব্যবসার পক্ষে কতটা সম্ভাবনাময় হতে পারে, ‘সিঙ্গলস ডে’ এর বিক্রি থেকে সেটারই খুব স্বল্প একটা আঁচ পাওয়া যায়। কেবল অনলাইন কম্পানিগুলিই নয়, বরং হাজার হাজার উচ্চ গুণমানের পণ্য উৎপাদক সংস্থা তাদের সামগ্রী বিক্রি করেছে এই ‘সিঙ্গলস ডে’তে। “চীনের মধ্যবিত্ত জনসংখ্যা হল ৩০০ মিলিয়ন। আমাদের বিশ্বাস, আগামী ১৫ বছরের মধ্যে এই সংখ্যাটা ৫০০ মিলিয়ন হয়ে যাবে। যার ফলে উচ্চ গুণমাণের পণ্যের চাহিদা বাড়বে, যা সাহায্য করবে দেশের অর্থনৈতিক বৃদ্ধিতে,” বললেন মা।

অনলাইনের বিক্রি হওয়া সামগ্রীর মধ্যে মাত্র ৫৮.৭ শতাংশ হল আসল, এবং বাকি ৪০ শতাংশই নিম্ন গুণমাণের বা নকল – এই মর্মে চীনা আইনপ্রণয়ন সংস্থার কাছে রিপোর্ট জমা পড়া সত্ত্বেও অনলাইন সংস্থাগুলি সফলভাবে ব্যবসা করে চলেছে। চীন গতবছর ৪৪২ বিলিয়ন মার্কিন ডলার বিনিয়োগ করে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ৩০০ বিলিয়নের ব্যবসাকে পিছনে ফেলে দিয়েছে এবং অনলাইনের পরিসরে চীনের ব্যবসা হয়ে উঠেছে বিশ্বের বৃহত্তম।

PTI