গাড়ি কেনার কথা ভাবছেন? খোঁজ নিন CarDekho.com এ

0

এই প্রবন্ধটি Verisign প্রযোজিত সিটিস্পার্কস সিরিজের অংশ।

গাড়ির মতো প্রয়োজনীয় ও দামী জিনিস কেনার সময় দেখে নিতে নয় খুঁটিনাটি, যাচাই করে নিতে হয় প্রতিটি কার্যকারীতা, করতে হয় দামের তুল্যমূল্য বিচার। এতে একদিকে যেমন নষ্ট হয় বেশ কিছুটা সময়, তেমনই দোকানে দোকানে ঘুরতে যায় টাকা ও পরিশ্রম। এইসব ঝামেলা এড়াতেই ক্রেতারা এখন সাহায্য নিচ্ছেন CarDekho.com এর মতো ওয়েবসাইটের। প্রতিটি গাড়ি সম্পর্কিত সব তথ্য পাওয়া যায় এই ওয়েবসাইটে, সেখান থেকেই ক্রেতা পছন্দ করে নিতে পারেন তাঁর প্রয়োজনীয় গাড়িটি। এতে সময়, পরিশ্রম, টাকা সবকিছুই বাঁচে। Alexa-এর র্যা ঙ্কিং অনুযায়ী CarDekho.com ভারতের প্রথম ২০০টি সবথেকে জনপ্রিয় ওয়েবসাইটগুলির মধ্যে একটি। গাড়ির ক্রেতা, মালিক, বিক্রেতা ও গাড়ি নিয়ে উত্সাহী মানুষজন গাড়ি সংক্রান্ত যাবতীয় তথ্য আদানপ্রদানের জন্য এই ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মটিকে ব্যবহার করেন।


গাড়ি খোঁজার ক্ষেত্রের সবরকমের অসুবিধাগুলিকে অতিক্রম করে CarDekho.com। ২০০৮ সালে শুরু হয়েছে ওয়েবসাইটটি। সংস্থার সিইও ও সহপ্রতিষ্ঠাতা অমিত জৈন বললেন, “আগে গাড়ি কেনার সময় একটি জায়গা থেকে সম্পূর্ণ তথ্য পাওয়া সম্ভব ছিল না, যেখানে বিভিন্ন রকমের গাড়ির মধ্যে তুলনা করা যায়, তুলনা করা যায় দামের, এমন কী নতুন ও পুরোনো গাড়ির মধ্যে থেকেও বেছে নেওয়া যায় প্রয়োজন ও সাধ্য অনুযায়ী।

কারদেখোর মডেল তার সাফল্য প্রমাণ করেছে। ২০১৩ সালে সিক্যুইয়া ক্যাপিটাল থেকে ১৫ মিলিয়ন ইউএস ডলার বিনিয়োগ সংগ্রহ করে কোম্পানিটি। এরপর এই বছরের গোড়ার দিকে হিলহাউস ক্যাপিটাল, টাইবোর্ন ক্যাপিটাল ও রতন টাটার থেকে মোট ৫০ মিলিয়ন ইউএস ডলার সিরিজ বি ফান্ডিং পেয়েছে তারা।

কারদেখোর অভিজ্ঞতা

অমিত বললেন, ক্রেতাদের মানসিকতার পরিবর্তন হয়েছে, পুরোনো পদ্ধতিতে দোকান ঘুরে কেনার বদলে CarDekho.com এর মতো অনলাইন মঞ্চে গাড়ি সম্পর্কে খোঁজখবর নিয়ে গাড়ি কিনছে তারা। এই পরিবর্তনটা এসেছে ধীরে ধীরে। অনলাইনের দ্রুততা ও সুবিধা এবং পাশাপাশি অনালাইনে টাকা লেনদেনের নিরাপত্তা বৃদ্ধি, এই পরিবর্তনটা আনতে সাহায্য করেছে।


কারদেখো ক্রেতাকে গাড়ি সম্পর্কিত যাবতীয় তথ্য দেয় এবং ক্রেতা ও বিক্রেতার মধ্যে সেতু বন্ধনের কাজ করে। এখন অবধি তাদের ওয়েবসাইটের তালিকায় ১, ৪০০ নতুন গাড়ি বিক্রেতা ও ৩,০০০ ব্যবহৃত গাড়ির বিক্রেতা রয়েছে। প্রতিমাসে ১০ মিলিয়ন হিট হয় তাদের ওয়েবসাইটে এবং সংখ্যাটা ক্রমবর্ধমান।

স্মার্ট ফোনের ব্যবহার আরও অনেক সুযোগ করে দিয়েছে, কারণ ফোনের মাধ্যমে অনেক বেশি মানুষ ইন্টারনেট পরিষেবার সুবিধা পাচ্ছেন।

বর্তমানে সরাসরি ক্রয়ের ক্ষেত্রে অংশগ্রহণ করতে পারে না কারদেখো তবে যেভাবে পরিবর্তন হচ্ছে খুব তাড়াতাড়িই হয়তো এটা বদলাবে।

কেন ডটকম?

কারদেখোর প্রচারকরা এমন একটা নাম চাইছিলেন যা শুধু তাদের ব্যবসাকে সঠিকভাবে চিত্রিত করবে তাই নয়, যা মনে রাখাও সহজ। হিংলিশের জনপ্রিয়তার যুগে কারদেখো তাই একটি উপযুক্ত নাম। ডটকম টার পিছনে অন্য কোনো ভাবনা ছিলনা, ইন্টারনেট ও যেকোনও অনলাইন বিষয়ের সমার্থক ডট কম। যেকোনও কোম্পানি যারা নিজেদের ব্র্যান্ডিংয়ের উন্নতি ঘটাতে চায় ও ছড়াতে চায় ওয়েবসাইটের জন্য ডটকম তাদের প্রথম পছন্দ, বললেন অমিত। ইন্টারনেট সার্চের উপরের দিকে থাকা ও অনলাইন ব্র্যান্ডিংয়ের জন্য সঠিক ডোমেন নাম বেছে নেওয়া খুব জরুরি।


কারদেখোর সবথেকে বড় চ্যালেঞ্জ এবং সুযোগ তৈরির জায়গা হল ক্রেতার আস্থা অর্জন, কারণ গাড়ি কেনা ভারতীয় ক্রেতার পক্ষে সবথেকে বড় ক্রয় সিদ্ধান্ত। কারদেখো বস্তুনিষ্ঠ, সঠিক ও স্বচ্ছ পদ্ধতিতে তথ্য ও তালিকা দেওয়ায় তাদের গ্রহণযোগ্যতা তৈরি হয়েছে, এবং আরও বেশি সংখ্যক ক্রেতা গাড়ি কেনার আগে অনলাইন খোঁজখবর নিচ্ছেন। বাজারের প্রয়োজন সঠিকভাবে বুঝে, সেটাকে ঠিক ভাবে মেটানোর পথ বের করতে পারলে ডটকম ডোমেন নাম টার্গেট অডিয়েন্সদের কাছে পৌঁছনোর একটি যথাযথ মাধ্যম, CarDekho.com যা করছে।

প্রথগতভাবে একটি অফলাইন বাজারে পরিষেবা দিতে ডটকমের সুবিধা নিয়ে কারদেখো একটি জনপ্রিয় মঞ্চ হয়ে উঠেছে। আপনারও কী এরকম কোনও অসাধারণ পরিকল্পনা রয়েছে? তা বাস্তবায়িত করুন, ডটকমের মাধ্যমে বেড়ে উঠুন।

লেখা-সারিকা নায়ার

অনুবাদ- সানন্দা দাশগুপ্ত