জলে ফোন! মারফির সমাধান Reviveaphone

ফোন সারিয়ে বিশ্বজয় ২২ বছরের ব্রিটিশ তরুণের। নাম অলিভার মারফি। বলছেন ফোনে জল গেলে ভাববেন না ফোন জলে গেল। সারানো যায়। এবং সেগুলো দারুণ চলে।

3

২২ বছরের এক ব্রিটিশ ‌সদ্য তরুণ দুনিয়া জুড়ে ব্যবসা করছেন। ইতিমধ্যে ইউরোপের বেশ কয়েকটি দেশে ছড়িয়ে পড়েছে অলিভার মরফির কাজকারবার। অলিভার এখন তা আরও প্রসারিত করার স্বপ্নে বিভোর। যেভাবে কাজকারবার চলছে, তাতে হয়তো আগামী দিনে দুনিয়া জুড়ে অলিভার মরফির ব্যবসা করার পরিকল্পনা শীঘ্রই সত্যি হয়ে উঠবে।

অলিভারের কাজকারবার ফোন নিয়ে। বাতিল, অকেজো হয়ে পড়া ফোন সারিয়ে তিনি সুস্থ করে তোলেন। অলিভার বললেন, যখন আমার বয়স মোটে ১৩, তখন থেকেই আমি ফোন সারাতে পারি। তখনই ভাঙা ফোন সারিয়ে বেচতাম। অতিরিক্ত কিছু টাকা আয় হত। পরে সেটাই ব্যবসার রূপ দিলাম। ভালোই চলছে সবকিছু।

যে সমস্ত ফোন জলের জন্যে কিংবা অন্য কোনও তরল পদার্থ ফোনের ভিতর ঢুকে পড়ায় খারাপ হয়ে যায়, অলিভারের সংস্থা সেগুলিকে সারায়। সুস্থ জীবন পেয়ে পুনরায় তারা দিব্যি কাজ করে। এ কাজ ব্যবসায়িকভাবে করার জন্যে অলিভার একটি প্রতিষ্ঠান গড়েছেন। প্রতিষ্ঠানের নাম রিভাইভ এ ফোন।

রিভাইভএফোন গড়া হয়েছিল হাত খরচার টাকা জমিয়ে। অলিভার জানালেন, পুঁজি ছিল হাত খরচের ৪০০ ডলার। এক বছরের ভিতরই কিন্তু দারুণ সাফল্য পেয়েছেন। রিভাইভএফোন এখন ব্যবসা করছে স্পেন, জাপান, উত্তর আমেরিকা, স্ক্যান্ডিনেভিয়ার একাধিক দেশে। সম্প্রতি অলিভার বাজারে এনেছেন তাঁর সংস্থার নিজস্ব একটি প্রোডাক্ট। যা স্মার্ট ফোনকে জল প্রতিরোধক ক্ষমতা জোগাবে।

রিভাইভএফোনের আগামী সম্ভাবনা নিয়ে বলতে গিয়ে অলিভার বললেন, আমি চাই রিভাইভএফোনের নাম দুনিয়ার ঘরে ঘরে উচ্চারিত হোক। ক্রমে বিশ্ব জুড়ে ছড়িয়ে পড়ুক রিভাইভএফোনের খ্যাতি। এটাই আমার জীবনের সবচেয়ে বড় উচ্চাশা।

Related Stories