দেশাই দম্পতির Impart এর কাজই প্রেরণা দেওয়া

1

অর্চনা এবং সমীর দেশাই। এই শহরের বুকে একটা আঁকার স্কুল চালান। সব বয়সের ছাত্র ছাত্রীর জন্যে একটা স্কুল। শিল্পের কোনও বয়স হয় না। শেখার তো নয়ই। এই কথা বিশ্বাস করে ২০১০ এ উডবার্ন পার্কে শুরু হয় ইমপার্টের যাত্রা। দেশাই দম্পতির আঁকার স্কুল ইমপার্ট। এক্কেবারে শিশু থেকে যে কোনও বয়সীরা এই স্কুলের শিক্ষার্থী। গৃহবধূ, চাকরীজিবী, ডাক্তার, নার্স, অবসরপ্রাপ্ত কর্মী কে নেই এই আঁকার ক্লাসে। শুধু তুলি আর রঙের খেলা খেলতে চাইলেই চলে আসতে পারেন ওদের এই শিল্পের আস্তানায়। সাত বছরে তিন তিনটি শাখা খুলেছে ইমপার্ট। উডবার্ন পার্কের স্কুলের সাফল্যের পর প্রিন্স আনোয়ার শাহ রোড এবং আরও পরে সল্টলেক সেক্টর ওয়ানের সিডি ব্লকে একটি শাখা খোলা হয়েছে। রাজারহাট, নিউটাউন, সল্টলেক, কাঁকুরগাছি, লেকটাউন, দমদম এইসব জায়গার মানুষ ওদের ক্লাসে আসতে চাইতেন অথচ দূরত্বের কারণে আসা হত না। তাই সল্টলেকে শাখা খোলা। যেসব বয়স্ক মানুষ প্রথম প্রথম আসতে অস্বস্তি বোধ করতেন তাঁদের শিল্পকলা নিয়ে আড্ডা দিতে ডাকা হত। এখন তারা নিয়মিত সুবোধ ছাত্র। তাদের আঁকার প্রদর্শনী হয়। কেউ কেউ তো রীতিমত শিল্পী মহলে বেশ নাম ডাকও করেছেন। শখ কখন প্যাশন হয়ে গিয়েছে এই গুজরাটি দম্পতি সেটা খেয়ালও করতে পারেননি।