কর্পোরেট জীবন ছেড়ে গ্রামে গিয়ে দম্পতির Xperienceunlimited

0

প্রুভু, উত্তর ভারতের এক পাহাড়ী কন্যা আর শাউন দক্ষিণের মালায়ালি ছেলে। বেঙ্গালুরুতে কর্মসূত্রে পরিচয় দুজনের, সেখানেই প্রেম, পরে জীবনসঙ্গী হিসেবে বেছে নেন একে অন্যকে। এধরণের গল্পে সাধারণত প্রচুর বাধা থাকে, কিন্তু এক্ষেত্রে ভাগ্য তাঁদের সঙ্গে ছিল। এখন একটি স্টার্টআপের মালিক প্রুভু ও শাউন।

চাকরি দু’জনকে বেঙ্গালুরুতে নিয়ে এসেছিল। কিন্তু প্রুভু ও শাউন কারোরই পছন্দ ছিলনা শহুরে ব্যস্ত জীবন, বরং প্রকৃতির কাছাকাছি জীবন কাটানোর স্বপ্ন দেখতেন তাঁরা। “তাই ২০১০ সালে তথ্যপ্রযুক্তির মোটা মাইনের চাকরি ছেড়ে কেরালার বিভিন্ন ছোট শান্ত গ্রামে থাকতে শুরু করি আমরা”, বললেন শাউন। সেখানে এবং দেশের অন্যান্য জায়গায় ঘুরে স্থানীয় মানুষের জীবন সম্পর্কে জানতে শুরু করেন এই দম্পতি। “নানাধরণের মানুষের সঙ্গে গল্প করা, তাঁদের সংস্কৃতি জানা, আমাদের চারদিকে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা নানা গল্প আবিষ্কার করা, এই ছিল আমাদের গ্রামের জীবন”, জানালেন শাউন। বললেন, “কেরালার পর্যটন সম্পর্কে জানতে শুরু করি আমি, কাজ করি একটি বন্যপ্রাণীকেন্দ্রিক পর্যটন সংস্থার সঙ্গে”। এইখানে কাজ করার সময় বিভিন্ন ধরণের বিষয়ের সম্পর্কে জানার সুযোগ হয় তাঁর, তৈরি হয় দক্ষতা।

“অন্যের জন্য কাজ করি বা নিজের জন্য, একই পরিমাণ শ্রম দিতে হবে, তাই আমরা ঠিক নিজেদের স্টার্টআপ শুরু করব। গ্রামীণ জীবনকে কাছ থেকে দেখার স্বপ্নপূরণ হবে এর মাধ্যমে”, বললেন শাউন। এভাবেই শুরু Xperienceunlimited।

শুরুতে Xperienceunlimited ছিল পুরোটাই অফলাইন। ডেটক্স থেরাপি ব্রেক, যোগ, ক্যাম্পিং ও ট্রেকিং, রোড ট্রিপ ইত্যাদি নানা পরিষেবা মিলত এখানে। কয়েকটি অফবিট পর্যটন সংস্থার সঙ্গে যৌথভাবে কাজ শুরু করে তারা।


বিভিন্ন কর্পোরেট সংস্থাগুলির কাছে সরাসরি গিয়ে নিজেদের পরিষেবার প্রচার করতে শুরু করেন শাউন ও প্রভু। কিন্তু কিছুদিনের মধ্যেই নিজেদের অনলাইন গ্রাহক সংগ্রহের প্রয়োজনীয়তা অনুভব করেন তাঁরা। বোঝেন যোগাযোগের জন্য ইন্টারনেটের ওপরই ভরসা করতে হবে। “আজকের এই ইন্টারনেটের যুগে যে কোনো জায়গায় বসে যা কিছু শেখা সম্ভব, দুসপ্তাহ ধরে ইউটিউবের টিউটোরিয়াল থেকে শিখে নিজেদের স্ট্যাটিক ওয়েবসাইট বানাই”, জানালেন শাউন। অনলাইন শিক্ষা থেকে শিখে, নেটিগ্রিটির মাধ্যমে ডোমেন নাম রেজিস্টার করেন তাঁরা। ডোমেন নাম এমন হওয়া উচিত, যা তাঁদের পরিষেবাকে সঠিক ভাবে উপস্থাপন করে। সে জন্যই বেছে নেওয়া Xperienceunlimited.com, কারণ তাঁদের মূল লক্ষ্যই ছিল গ্রাহকদের নানাধরণের অভিজ্ঞতা উপহার দেওয়া, আর ডটকম ছিল স্বাভাবিক পছন্দ। পৃথিবীজোড়া গ্রাহকের কাছে পৌঁছনোর জন্য এটা প্রয়োজন। বর্তমানে অনলাইনে নিজেদের উপস্থিতিকে সঠিকভাবে চালনা করার কৌশল আয়ত্ব করে ফেলেছেন তাঁরা, ব্যবসাও চলছে মসৃণভাবে।

আগামী পরিকল্পনা

গত পাঁচ বছর ধরে গ্রামেই জীবন কাটাচ্ছেন শাউন ও প্রভু। তাঁরা এমন একটি প্ল্যাটফর্ম তৈরি করতে চান যা গ্রামীণ মানুষদের সুযোগ করে দেবে। পর্যটন থেকে আপাতত ভালই আয় হচ্ছে, এবার আতিথেয়তা বিভাগ নিয়ে কাজ করতে চান তাঁরা। হিমাচল ও কেরালাতে পরিবেশ-বান্ধব ফার্ম হাউস কিনে সেগুলি চালানোর মধ্যে দিয়েই তা শুরু করার পরিকল্পনা রয়েছে।

আগামী নির্দিষ্ট সফরগুলির মধ্যে রয়েছে বাইক রাইড, ট্রেকিং ও গ্রামে থাকা, বিভিন্ন উত্সব, পরিবারে সঙ্গে ছুটি কাটানোর ব্যবস্থা ইত্যাদি।


ডট কমের সাহায্যে একটা বড় সংখ্যক মানুষের কাছে নিজেদের পরিষেবা পৌঁছে দিতে সমর্থ্য হয়েছেন শাউন ও প্রভু। এই সুযোগকে আরও বেশি করে কাজে লাগানোর পরিকল্পনা রয়েছে তাঁদের। ডটকমের সাহায্যে এভাবেই বাড়তে পারেন আপনিও।

লেখা-ইয়োর স্টোরি টিম

অনুবাদ-সানন্দা দাশগুপ্ত