Tech30 তালিকায় আছে যে তিরিশটি স্টার্টআপ

টেকস্পার্কের জয়যাত্রা অব্যাহত। ইয়োর স্টোরি আয়োজিত টেকস্পার্ক ইভেন্টে ইয়োর স্টোরি আলোয় এনেছে ৩০টি টেকনোলজি স্টার্ট আপ সংস্থাকে। একবার দেখে নিন এরা কারা।

0

টেক ৩০-এর ভিতর আছে ক্যাপিলারি, মুনফ্লগ ল্যাবস, লজিনেক্সট, ফ্লেশডেক্স, নিকি আই, হেকিল-এর মতো বেশ কয়েকটি সংস্থা। টেকস্পার্কে ‌এপর্যন্ত পিচ করেছে মোট ১৮০টি স্টার্ট আপ। এই সংস্থাগুলির ভিতর মোট ৯৭টি সংস্থা ইতিমধ্যে ৬৩০ মিলিয়নের বেশি পুঁজি নিয়ে কাজ করছে। চলতি বছরের টেকস্পার্কের জন্য ইয়োর স্টোরি মোট তিন হাজার সংস্থার কাছ থেকে আবেদন পায়। সারা ভারতের স্টার্ট সংস্থাগুলির আবেদনকারীদের মধ্যে ছিল। এর ভিতর বাছাই করে ৩০টি স্টার্ট আপ সংস্থাকে তালিকাভূক্ত করা হয়েছে।

এসিপ্যাড

সংস্থাটির প্রতিষ্ঠাতা কয়েকজন ইঞ্জিনিয়ার ও সুরকার। এই সংস্থাটি ইউনিভার্সাল ওয়্যারলেস মিডি (মিউসিক্যাল ইন্সট্রুমেন্ট ডিজিট্যাল ইন্টারফেস) কন্ট্রোলার তৈরি করে। যা ব্যবহার করা যায় গিটারে। বিশেষত অ্যাকোয়াস্টিক গিটারে। এর ফলে অ্যাকোয়াস্টিক ও ইলে‌কট্রনিক মিউজিকের ভিতর ব্যবধান কমানো যায়। এতে খরচও খানিক কমে। ব্যবহারও সুবিধাজনক। গিটারিস্টদের কাজের খুবই উপযোগীও। এসিপ্যাড গিটারিস্টের কাজের স্বাভাবিকতাকে ক্ষুন্ন না করে কেবলমাত্র এসিপ্যাড ও মিডি কন্ট্রোল ব্যবহার করে থাকে।

অ্যালগো ইঞ্জিনস

অপারেশনাল ইনটেলিজেন্স ব্যবহার করায় অ্যালগো ইঞ্জিনস। পারফরম্যান্স অ্যানালিস্ট, শক্তি বিষয়ক যথাযথ ও আগাম নির্ণয় ইত্যাদি শর্তগুলি সোলার ও হাইড্রো-ইলেকট্রিক শক্তির ক্ষেত্রে প্রয়োগের কাজ করছে অ্যালগো ইঞ্জিনস। ২০১৪ সালে এরা প্রথম ক্রেতা পায়। ভারত ও থাইল্যান্ডে, ফিলিপিনস ও জাপানে সোলার এনার্জি নিয়ে কাজ করছে এই সংস্থা।

অ্যান্টক্রল টেকনোলজিস প্রাইভেট লিমিটেড

ওয়েব ও অ্যাপ ডেভলপমেন্টের পরের ধাপ উন্নত ওয়েব অ্যাপ্লিকেশন। এই সংস্থা এমন এক ধরনের সফটওয়্যার তৈরি করেছে যা কিনা নিউ এজ অ্যাপ তৈরি করছে। এটি অফ লাইনে কাজ করতে পারবে। লো নেটওয়ার্ক জোন – যেমন, বেটাতে কা করবে। অ্যান্টক্রলের আগামী দিনগুলি সফল হবে বলেই মনে করা হচ্ছে।

অটোভিআরসি

অটোমোটিক সেক্টরের জন্য ভার্চুয়াল রিয়্যালিটি সফটওয়্যার নিয়ে কাজ করছে এই সংস্থা। সংস্থাটি বর্তমানে দুধরনের সমাধান দিয়েছে। প্রথমত অটোভিআরসি স্টুডিওতে ডিজাইন করা যেতে পারে। সেক্ষেত্রে থ্রিডি মডেল ব্যবহার করা হবে। দ্বিতীয় সমাদান হল ভার্চুয়াল শো-রুম তৈরি করা। এটি সহায়তা করবে গাড়ির ক্রেতাদের সঙ্গে সংস্থার যোগাযোগ রক্ষায়।

আজুকা

আজুকা লাইফসায়েন্স এদেশের একমাত্র ফ্লুরোসেন্ট ডাই কম্পানি। এদের প্রথম প্রোডাক্টটি ছিল জিরো টক্সিসিটির। তাছাড়া সমস্ত ধরনের বিপন্মুক্ত। প্রথম প্রোডাক্টটির নাম দেওয়া হয়েছে টিনটো rang।এটিতে ডিএনএ এবং আরএনএ ফুড গ্রেড রয়েছে।

বেন্ড ফ্লেক্স

বেন্ড ফ্লেক্স অ্যান্ড ডেভলপমেন্ট প্রাইভেট লিমিটেড ডিজাইনিং ডিভাইস তৈরি করে। এটির নাম কমপ্লেইন্ট মেকানিজম। মেডিক্যাল ডায়গনসিস করার কাজে এই ডিভাইসটি ব্যবহার করা হয়। এই সংস্থা অন্য একটি নতুন ধরনের ডিভাইস তৈরি করার কাজে হাত দিয়েছে যেটির মাধ্যমে ইন-ভিটরো ফার্টিলাইজেশন করা হবে।

সিটিজেনগেজ

সিটিজেনগেজ একটি প্রযুক্তি সংস্থা। বর্জ্য ম্যানেজমেন্টের কাজ করে থাকে এই সংস্থা। বর্জ্য রিসাইক্লিং করার কাজটি সুচারুভাবে সম্পন্ন করতে এই সংস্থা সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষগুলির সঙ্গে যোগাযোগ রক্ষা করে চলেছে।

ক্লাউডরিনো

ক্লাউডরিনো গ্রাহকদের সুবিধার দিকে বিশেষ নজর রেখে কাজ করে। এরা গ্রাহকদের ক্লাউড সার্ভারটি কোনও ধরনের অপারেটিং সিস্টেম নির্ভরতা ছাড়াই ব্যবহারের উপযোগী করে তুলেছে। এছাড়াও পরিকাঠামোর উন্নয়ন ঘটিয়ে ক্লাউডরিনো বিশেষ ধরনের একাধিক পরিষেবা দিচ্ছে।

কোনেক্সট্রা

কোনেক্সট্রার ইনডোনিস প্ল্যাটফর্মটি সংস্থার সমস্ত কর্মীকে একসূত্রে বাঁধার কাজে সহায়তা করে থাকে। এর ফলে কর্মক্ষেত্রটি অনেকই সৃজনশীল হয়ে উঠছে।

ক্রোফার্ম

কৃরষকদের সহায়তা করার জন্যে এক ধরনের প্রযুক্তি এনেছে ক্রোফার্ম। খাদ্যপণ্যে খুচরো ব্যবসায় যাঁরা নিযুক্ত তাঁরা ওই প্রযুক্তির মাধ্যমে উপকৃত হবেন।

জিএলভিডেল

ভারতে ট্যাক্সির সওয়ারি যাঁরা তাঁদের চলাচলের অভিজ্ঞতা পাল্টে দেবে এই সংস্থা। আঞ্চলিক ও জাতীয় স্তরে এই প্ৰযুক্তি ব্যবহার করা হয়ে থাকে। এজন্যে একটি ট্র্যাভেল অপারেটিং সিস্টেম তৈরি করা হয়েছে।

হ্যানসেল. আইও

মোবাইল পরিষেবার উন্নতি নিয়ে বর্তমানে যে কাজ চলছে তাতে নতুন মাত্রা সংযোজন করেছে হ্যানসেস.আইও। মোবাইল প্ৰযুক্তি নিয়ে যাবতীয় ভীতি কাটাবে হ্যানসেল.আইও।

হাসুরা

ওয়েব ও মোবাইল অ্যাপ্লিকেশন দ্রুততর করার কাজ করবে হাসুরা। সেইসঙ্গে বিভিন্ন কম্পানিকেও এ ব্যাপারে সহায়তা করবে। কয়েকটি ক্লিকে এন্টারপ্রাইজ গ্রেড আর্কিটেকচার তৈরি করছে হাসুরা।

হর্নটেল

বিভিন্ন ব্র্যান্ডগুলিকে নোটিফিকেশন পাঠানোর কাজে সহায়তা করে থাকে এই সংস্থা। মোবাইলে অ্যাপ ও ওয়েবসাইটসগুলিতে নোটিফিকেশন পাঠানো হয়ে থাকে।

হাইপার ট্র্যাক

লোকেশন চিহ্নিত করার কাজ করে হাইপার ট্র্যাক। সারা বিশ্বে এই কাজটি করা হচ্ছে সংস্থার মাধ্যমে। লোকেশন ট্র্যাকিংয়ের কাজটি জটিলতা বর্জিতভাবে করা হচ্ছে।

ইন্ডিয়ান টিটিএস

ইন্ডিয়ান টিটিএস একটি টে্ক্সট টু স্পিচ ব্যবস্থা। ভারতীয় আঞ্চলিক ভাষাগুলির ক্ষেত্রে্ এই ব্যবস্থা তৈরি করা হচ্ছে। হিন্দি ও ইংরেজি টেক্সট টু স্পিচ ইতিমধ্যে তৈরি করা হয়েছে।

ইনফিসিকিওর

ইনফিসিকিওর হল ওয়েব সিকিওরিটি ব্যবস্থা। অনলাইন ওয়েব নিরাপত্তার ক্ষেত্রে্র বিপদগুলির মোকাবিলা করবে।

ইনভেনট্রম

ইনভেনট্রম IoT product তৈরি করে থাকে। সেইসঙ্গে পরিষেবাও দিয়ে থাকে। স্বল্প খরচে এই কাজ করা হয়।

ক্রাইপিসি

ক্রাইপিসি একটি ব্লকচেইন মিডলওয়্যার সংস্থা। একটি বি২বি প্ল্যাটফর্ম সম্প্রতি গড়া হয়েছে। যার মাধ্যমে ব্লকচেইন সহজে কাজ করতে পারবে।

লিডো

লিডো স্টার্ট আপ সংস্থাগুলিকে সহায়তা করছে। ইফ-দিস-দেন-দ্যাট নকশায় লিডো ‌স্টার্ট আপ সংস্থাগুলির চলার ক্ষেত্রে নতুন আশার বার্তা নিয়ে এসেছে। ক্রেতা‌দের পরিষেবা পেতেও সহায়তা করছে লিডো।

লুসেপ

আর্টিফিসিয়াল ইন্টেলিজেন্সের মাধ্যমে লুসেপ যেটা করছে তা হল ক্রেতাদের উন্নত পরিষেবা পেতে সহায়তা করা। অনলাইনে এই করে আসছে লুসেপ। পাশাপাশি কম্পানির সেলস টিমের মোবাইলেও এই পরিষেবা ব্যবহার করা হয়।

ক্রেডিওয়াচ ইনফরমেশন অ্যানালিটিক্স প্রাইভেট লিমিটেড (পুরনো নাম মিনোটি)

ডাটা পরিষেবার ক্ষেত্রে রিস্ক অ্যানালিসিসের কাজ করে এই সংস্থা। সংস্থার দাবি, মোট ২৫ হাজার বিভিন্ন পয়েন্ট থেকে তথ্য সংগ্রহ করা হয়। এ ব্যাপারে তাঁরাই প্রথম সংস্থা যাঁরা সর্বাধিক ক্ষেত্র থেকে তথ্য সংগ্রহ করে।

এমপিএইচআরএক্স

এটি একটি হেলথকেয়ার টেকনোলজি সংস্থা। মূল কার্যালয় নিউইয়র্কে। নয়াদিল্লিতেও সংস্থার অফিস‌ আছে। মোবাইল হেলথকেয়ার সম্পর্কিত তথ্য পরিষেবায়‌ মোবাইল ডিভাইসের মাধ্যমে নতুন ধরনের কাজ করছে এমপিএইচআরএক্স।

নাস্তিক ‌অটোনোমাস সিস্টেমস প্রাইভেট লিমিটেড

বাণিজ্যিক ব্যবহারের জন্যে ড্রোন তৈরি করে থা্কে এই সংস্থা। শি্ল্প সংক্রান্ত পরিদর্শন, সার্ভে, সরবরাহ ইত্যাদি কাজে লাগে নাস্তিক আটোনোমাস সিস্টেমসের কমার্শিয়াল ড্রোন তৈরির অপারেটিং সিস্টেম। আপাতত বিশ্বের ১২টি দেশে কাজ করছে এই সংস্থা।

অনগ্রিড

স্টার্ট আপ সংস্থা হ্যান্ডি অনলাইন সলিউসনস প্রাইভেট লিমিটেডের একটি ফ্ল্যাগশিপ ব্র্যান্ড হল অনগ্রিড। তথ্য ও দলিলের ক্ষেত্রে্ ডিজিট্যাল টেকনোলজির ব্যবহার দেখাচ্ছে এই সংস্থা। এই প্রযুক্তিতে খরচও সাশ্রয় হচ্ছে।

ওরিয়ানো ক্লিন এনার্জি প্রাইভেট লিমিটেড

সোলার সলিউশনের মতো ক্লিন এনার্জি ব্যবহারের ক্ষেত্রে এই সংস্থার বিশেষ ভূমিকা আছে। গ্রিনহাউস গ্যাসের নিঃসরণ প্রতিরোধ করা যাবে ওই প্রযুক্তির মাধ্যমে।

অরভিটো টেকনোলজিস প্রাইভেট লিমিটেড

এই সংস্থা আবিষ্কারক তো বটেই – এর পাশাপাশি তৈরি করছে ও বাজারজাত করছে ওয়্যারলেস সারভেল্যান্স ক্যামেরা বা ওয়্যারলেস সুইচ প্যানেল। হার্ডওয়্যার, সফটওয়্যার ও সংস্থার নিজস্ব মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়াররা এই কাজ করে

প্ল্যানিস টেকনোলজিস

এটি আইআইটি মাদ্রাজের ইনকিউবেটেড সংস্থা। এদের কাজ নৌ, তেল ও গ্যাস সংস্থা, প্রতিরক্ষা সংস্থা ইত্যাদিকে কাস্টমাইজড রোবোটিক সলিউশন দিয়ে সহায়তা করা। জলের তলায় সার্ভে চালানোর কাজে সংস্থার রয়েছে রিমোটলি অপারেটেড ভেহিক্যাল।

রিয়্যালবক্স ডাটা অ্যানালিটিক্স

বিজনেস ইন্টেলিজেন্স ও অনুমানভিত্তিক বিশ্লেষণের প্রযুক্তি কাজ করছে এই সংস্থা। এতে ঝুঁকি কমছে ও বেশি পরিমাণে রাজস্ব আদায় হচ্ছে।

সোল ভিশন ক্রিয়েশনস প্রাইভেট লিমিটেড

অনলাইন ডিসকভারি-অফলাইন পারচেজ মডেল নিয়ে কাজ করছে সোল ভিশন ক্রিয়েশনস প্রাইভেট লিমিটেড। প্রথার বাইরে গিয়ে এই ধারা চালু করেছে এই সংরস্থা।