অনলাইন কেনাকাটায় লোভনীয় ছাড়

0

দরদাম করে খরিদারি ভারতে ক্রেতাদের অন্যতম চারিত্রিক বৈশিষ্ট। আর লোভনীয় ডিসকাউন্ট থাকলে তো কথাই নেই। অনলাইন কেনাকাটা ক্রমশ বাড়তে থাকায় সেই ডিসকাউন্টের ব্যাপারটা এখন ইন্টারনেটেও গিয়ে পৌঁছেছে। কারা দেয় সেই ডিসকাউন্ট? ইতিমধ্যে বাজারে এসে গিয়েছে এমনই বেশ কয়েকটি সংস্থা। এর মধ্যে সাড়া ফেলে দিয়েছে Groupon, Coupondunia, Mydala, Couponnation. সেই তালিকাতেই নতুন Encashit.


শুরুর কথা

Encashit হচ্ছে একটি online coupon and cashback platform. বিজয় সুরাম এবং আমসি মাগান্তির ব্রেনচাইন্ড হচ্ছে এই স্টার্টআপ। শুরু ২০১৫ সালের জুনে। ২০১১ সালে তাঁর ইঞ্জিনিয়ারিং ডিগ্রি পান বিজয়। সেইসময় ই-কমার্স ব্যাপারটা সবে ভারতে মাথা তুলতে শুরু করেছে। শুরুর দিকে কুপনিং স্টার্টআপগুলিকে এই ক্ষেত্রের নামি সংস্থা যেমন CCD, goibibo, FnP-র সঙ্গে গাঁটছড়া বাঁধতে সহায়তা করতেন বিজয়। কয়েক মাস পরে এর থেকেও বড় কিছু করার কথা ভাবেন বিজয়। এমন কিছু যা ব্যবসায়ী এবং গ্রাহক, দু'জনের জন্যই লাভদায়ক হবে। সেই ভাবনা থেকেই ২০১২ সালে শুরু করলেন cashback365.in নামে একটি coupons and cashback website. এর সঙ্গে মোবাইল অ্যাপ্লিকেশন জুড়তে গিয়ে দেড় লক্ষ টাকা বিনিয়োগ করতে হয়েছিল বিজয়কে। সেই বছরের মাঝামাঝি তিনি ব্যবসায় ধাক্কা খান। অনেক টাকা ক্ষতিও হয়। ধাক্কা সামলাতে না পেরে স্টার্টআপকে তখনকার মতো তুলে দিয়ে Cognizant-এ চাকরি নেন বিজয়। বছর আড়াই চাকরি করলেও তা বিজয়কে খুশি করতে পারেনি। তিনি দেখেন e-commerce ধীরে-ধীরে m-commerce-এর রূপ নিচ্ছে। হারিয়ে যাওয়া উৎসাহ যেন ফিরে পেতে থাকেন বিজয়। ফের দলবল নিয়ে কাজে নেমে পড়েন। coupons and cashback শপিংয়ের কাজে সেরা মোবাইল প্রোডাক্ট ব্যবহার শুরু করেন। সেই সংস্থাই Encashit. শুরুর প্রথম ৪৫ দিনেই যাতে ডাউনলোডের সংখ্যা প্রায় ২০ হাজার।

হাওয়া ঘুরল

নতুন মোবাইল অ্যাপ্লিকেশনকে কাজে লাগিয়ে ওয়েবসাইট কিন্তু সাড়া ফেলেছে। প্রতিদিন কমপক্ষে ৫০০ লেনদেন হচ্ছেই। এখানে একটা মজার ব্যাপারও রয়েছে। ওয়েবসাইটে যারা চোখ রাখেন তাদের সংখ্যা সাপ্তাহিক ভিত্তিতে প্রায় ৬০ শতাংশ কমছে। আর মোবাইল অ্যাপ ব্যবহারকারীরে ক্ষেত্রে তা বাড়ছে ৩০০ শতাংশ। Encashit বর্তমানে অ্যাপ টু অ্যাপ এমন একটি ফিচার এনেছে যা থেকে Flipkart ও Shopclues থেকে ক্যাশব্যাক আর্নিংয়ের সুযোগ মিলবে। Jabong, Myntra, Snapdeal, Pepperfry-র মতো সংস্থাগুলির সঙ্গেও এ ব্যাপারে পার্টনারশিপের পরিকল্পনা নিয়েছে এনক্যাশইট। বিজয়ের কথায়, "ক্যাশব্যাক ব্যাপারটা নতুন। ফলে সব গ্রাহককে তা জানানো একটা বড় চ্যালেঞ্জ। এখন এই ক্যাশব্যাক পাওয়ার জন্য ৬০ থেকে ৯০ দিন পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হয়। এতদিন অপেক্ষা করার ধৈর্য কম লোকেরই রয়েছে। তারা জিনিস কেনার সঙ্গে-সঙ্গে ডিসকাউন্ট চান।"


আমসি এবং(বিজয় (বাঁ দিক থেকে)
আমসি এবং(বিজয় (বাঁ দিক থেকে)

নতুন নাম কেন?

সংস্থার নাম পরিবর্তনের পিছনে বিশেষ কারণ নেই বলেই জানালেন বিজয়। cashback365.com নামটা ইতিমধ্যেই অন্য কয়েকটি দেশে ব্যবহার করা হয়েছে বলে তার বক্তব্য।

ভবিষ্যতের পরিকল্পনা

২০১৬ সালের মার্চের মধ্যেই ডাউনলোডের সংখ্যা ৫ লক্ষে নিয়ে যেতে চায় সংস্থা। ৫০০ থেকে বাড়িয়ে দৈনিক লেনদেনের সংখ্যা করতে চায় কমপক্ষে তিন হাজার। রয়েছে নিজস্ব iOS ও Windows apps ব্যবহারের ভাবনাও। ক্যাশব্যাক অপশনের পাশাপাশি নেক্সট এডিশনে Price Comparison-এর একটা ফিচারও রাখতে চান বিজয়রা।

ইয়োর স্টোরির সংযোজন

কোনও কোনও বাজার বিশেষজ্ঞ বলে থাকেন, ভারতে কুপনিং বিজনেসের সম্ভাবনা শেষ। যদিও Groupon India, Mydala, Coupondunia, Cashkaro, Pennyful, Encashit-র সাফল্য অন্য কথাই বলছে। একটি ইন্ডাস্ট্রি এস্টিমেট অনুযায়ী, ভারতে আগামী কয়েক বছরে এই ধরনের affiliate বা performance marketing ৫০০ শতাংশ পর্যন্ত বাড়তে পারে। এখনও পর্যন্ত ভারতে অ্যাফিলেট মার্কেটিংয়ের বিষয়টা সীমাবদ্ধ রয়েছে কুপন, প্রাইস কমপ্যারিসন বা ক্যাশব্যাক প্ল্যাটফর্মের মধ্যেই। এখন দেখার এইসব স্টার্টআপ কীভাবে বিষয়টা সামলায়।