গানে গানে 'ভোট দিন' কাকুতি মিনতি স্বপন বাউলের

0

রাজনৈতিক দলগুলির ভোট চাওয়ার প্রতিযোগিতায় প্রাণ ওষ্ঠাগত দিন আনা দিন খাওয়া মানুষের। এ বলে আমায় দেখ তো ও বলে আমায়। সবাই যখন নিজের নিজের ঝুলিতে ভোট নিশ্চিত করতে ব্যস্ত তখন অজ পাড়াগাঁয়ের এক বাউল সুরে সুরে অন্য প্রচারে মগ্ন।

বাসস্ট্যান্ড, ট্রেন স্টেশন, পাড়া থেকে পাড়া, অলি গলি তস্য গলি ঘুরে ঘুরে নতুন নতুন গান বেঁধে যাচ্ছেন স্বপন বাউল...আয় রে ভোটার আয় ভোট দিয়ে যা...। বাউলের সুর শুনে ব্যস্ত সময়ে ঠাঠা রোদে ক্ষণিকের জন্য থমকে যাচ্ছেন পথচারীরা। মাঝারি গড়ন আর শ্যামলা বরণের এই বাউলের কণ্ঠে ভোটদানের আবেদন, গানের ছত্রে ছত্রে ভোটারদের সচেতন করার প্রচেষ্টা। নির্বাচন কমিশনের উদ্যোগে সে জায়গায় জায়গায় ঘুরে ঘুরে ভোটের জন্যে প্রচার করে বেড়াচ্ছে। বলছে, নোটে নয়, ভোটে থাকুন

প্রার্থীদের দেয়াল লিখন, ব্যানার আর পোস্টারের সঙ্গে রাজ্য জুড়ে পাল্লা দিচ্ছে নির্বাচন কমিশনের নানান স্লোগান লেখা হোর্ডিং। সুষ্ঠু এবং অবাধ ভোটের প্রচারে শুধু হোর্ডিং নয়, গাঁয়ে-গঞ্জে, শহরে-জনপদে বাউল এবং লোকগীতির মাধ্যমে প্রচারের কৌশল নিয়েছে নির্বাচন কমিশন। কমিশনের আহ্বানে সাড়া দিয়ে, বাউল দর্শন বুকে নিয়ে সুর বেঁধে মানুষকে সচেতন করার দায়িত্ব নিয়েছেন এই অনামী বাউল। বর্ধমান শহরের খাজা আনোয়ার শাহ রোডের স্বপন এখন রাজ্যের পথে পথে ঘুরছেন মানুষকে স্রেফ জাগাবেন বলে।

হঠাৎ ভোটারদের ভোটদানে উৎসাহিত করার প্রচারে কেন নামলেন? প্রশ্নের পর বাউলের উত্তর, ‘এতে রথ দেখা আর কলা বেচা দুই-ই হচ্ছে। একদিকে প্রচারের গান গেয়ে জেলা থেকে জেলা চষে বেড়াচ্ছি, অন্য দিকে গানের মাধ্যমে বাউলের জীবন দর্শন মানুষের মধ্যে আরও বেশি করে পৌঁছে দেওয়ার সুযোগ পাচ্ছি’। ‘মফঃস্বল এলাকাকেই বেছে নিয়েছি। লোকগান আর বাউলের মেঠো সুর গ্রামবাংলার মানুষকে কাছে টানে। মানুষ যাতে নিজের ভোটটি নিজে দেন তার জন্য নির্বাচন কমিশন নানা প্রচার করছে। কমিশনের এই বার্তা গ্রামের সহজ সরল ভোটারদের কাছে পৌঁছে দিতে একতারা তবলা নিয়ে মাঠেঘাটে ঘুরছি’, বলেন স্বপন বাউল। নিজে গান বাঁধছেন, নিজে সুর দিচ্ছেন। গানে গানে ভোটারদের সচেতন করার দায়িত্ব নিজেই নিয়েছেন। উৎসাহ ভরে সেই কাজ করে চলেছেন। স্বপন বাউলের প্রচারে খুশি প্রশাসনও। ‘সরকারি প্রকল্পে উনি স্বতস্ফূর্তভাবে যেভাবে সহযোগিতার হাত বাড়িয়েছেন তাতে কোনও প্রশংসাই যথেষ্ট নয়’, বলছিলেন বর্ধমানের জেলাশাসক সৌমিত্র মোহন। বর্ধমান জেলার ভোট শেষ। তাই এবার যাত্রা অন্য জেলাগুলিতে। ভোটের প্রচারে বেরিয়ে পড়েছেন স্বপন বাউল, সঙ্গী তাঁর একতারা। আপনার সঙ্গেও দেখা হয়ে যেতে পারে স্বপন বাউলের।