লগ্নির সম্ভাবনা নিয়ে ভারতে আসছে Yesss Capital

3

প্রযুক্তি, শক্তি, গণমাধ্যম ও বিনোদন ক্ষেত্রে স্টার্টআপদের জন্যে সুখবর। বিনিয়োগ করতে উৎসাহ নিয়ে ভারতে আসছে Yesss ক্যাপিটাল। ২০১৫ সালে সংস্থাটি শুরু করেছিলেন দুই জার্মান যুবক। অ্যাক্সেল এবং বরিস। ইউরোপের এই ভেঞ্চার ক্যাপিটাল ফার্ম মূলত সিড ফান্ড করার ব্যাপারেই উৎসাহী। উত্তর আমেরিকা, ইউরোপ এবং উন্নয়নশীল বিশ্বে বিনিয়োগ করে Yesss ক্যাপিটাল। সংস্থার নামের বানানটি পরিচিত ইয়েস নয়। কেন এত S নামের বানানে? জিজ্ঞেস করায় সংস্থার দুই কর্ণধার অ্যাক্সেল এবং বরিস জানালেন ওরা ইয়েস এই শব্দটাকে গুরুত্ব দিয়ে বলতে চান।

সচরাচর কোনও স্টার্টআপ সংস্থা যদি বিনিয়োগের জন্যে দরবার করতে বিনিয়োগকারীর দরজায় যায় তবে অধিকাংশ সময় মুখের ওপর দরজা বন্ধের অভিজ্ঞতা হয়ে থাকে। এখানেই অ্যাক্সেল আর বরিসের স্ট্র্যাটেজি পৃথক। ওরা চেষ্টা করেন হ্যাঁ-টা বলতে। এবং সেটাও অত্যন্ত আন্তরিকতার সাথেই।

বিভিন্ন ধরণের সংস্থায় ওরা বিনিয়োগ করতে চান বিশেষ করে যারা অভিনব কোনও ভাবনা নিয়ে কাজ করছেন এমন সংস্থায় বিনিয়োগ করে থাকেন অ্যাক্সেল অ্যান্ড বরিসের এই ইয়েস ক্যাপিটাল। প্রযুক্তি ক্ষেত্রে বৈপ্লবিক কিছু করার স্বপ্ন দেখেন এই দুই যুবক। ওরা বলছিলেন উত্তর আমেরিকা এবং ইউরোপের প্রযুক্তিগত উৎকর্ষকে ভারত, বাংলাদেশ সহ এশিয়া এবং আফ্রিকার দেশে গজিয়ে ওঠা উদ্ভাবনী বাণিজ্যিক প্রতিভার সঙ্গে যুক্ত করে দিতেই ওরা এবার বেরিয়ে পরছেন। এশিয়ার বিভিন্ন দেশে যাবেন। ঘুরবেন আফ্রিকাতেও। সেখানকার স্টার্টআপদের সঙ্গে সাক্ষাত করতে চাইবেন। এবং সেই সূত্রেই ওদের ভারতে আসার পরিকল্পনা।

দুজনের সাফ কথা, মানুষের এখন হাজার একটা সমস্যা বিভিন্ন সেক্টরেই সমস্যার অভাব নেই ধরুন নিরাপদ খাদ্য কিংবা পরিবেশ অথবা ধরুন ফসিল ফিউল ফুরিয়ে যাচ্ছে ফলে শক্তির জোগানের ক্ষেত্র, শিক্ষা বা স্বাস্থ্যের মত ক্ষেত্র সর্বত্রই সমস্যা আছে। ওরা খুঁজছেন এমন অভিনব, উদ্ভাবনী আধুনিক প্রযুক্তি যা বিশ্বের মানুষের সমস্যা সমাধান করতে পারবে। এরকম সংস্থায় বিনিয়োগ করতে ওদের দুবারও ভাবতে হবে না।

ভারতে ওরা তাই আসছেন অভিনব আইডিয়ার সন্ধানে। কারণ ওরা জানেন ভারতের উর্বরতায় ধান, গমের মত আইডিয়াও দুর্দান্ত ফলে। 

ভারতে জারভিস অ্যাক্সিলেরেটরে মেন্টর হিসেবে যুক্ত এই দুই উদ্যোগপতি। এবার সরে জমিনে ভারতের স্টার্টআপ ইকোসিস্টেমটাও মেপে যাবে ইয়েস ক্যাপিটাল। কলকাতাতেও আসার উৎসাহ রয়েছে। ইনক্রেডিবল ইন্ডিয়ায় বাংলা ইওরস্টোরি ওদের স্বাগত জানায়।

Related Stories