পদ্মশ্রীর অভিজ্ঞতাই মার্কিন স্টার্টআপের মূলধন

0

বয়স ৫৫। বুদ্ধিদীপ্ত চোখ আর ধারালো ব্যক্তিত্ব। দেখলেই বোঝা যায়, আগাগোড়া কর্পোরেট কালচারে বিশ্বাসী। ইনি পদ্মশ্রী ওয়ারিয়র। ভারতে জন্ম হলেও এখন আর এখানকার বাসিন্দা নন। সিলিকন ভ্যালির পরিচিত মুখ, নানা সংস্থায় উচ্চ পদে কাজ করেছেন দীর্ঘদিন। মার্কিন বৈদ্যুতিন গাড়ি প্রস্তুতকারক টেসলার সঙ্গে প্রতিযোগিতায় নামতে একটি চিনা সংস্থাও বৈদ্যুতিন গাড়ি বাজারে ছাড়ে। ওই চিনা সংস্থার ইউএস সিইও হিসেবে কাজ করেছেন পদ্মশ্রী। এবার অন্য মিশন। শিগগিরই চিফ ডেভেলপমেন্ট অফিসার এবং সিইও হিসেবে যোগ দিচ্ছেন মার্কিন স্টার্টআপ NextEV এ।

টেকনোলজি ইন্ডাস্ট্রিতে অভিজ্ঞ পদ্মশ্রী কিছুদিন আগে সিসকোর চিফ টেকনোলজি এবং স্ট্রেটেজি অফিসার ছিলেন। এই বছর জুনে পদ ছাড়েন। প্রযুক্তির ভাববিলাসি হিসেবে তাঁর অভিজ্ঞতা সন্দেহাতীত। বিশ্বের বাজারকে হাতের তালুর মতো চেনেন। ‘তাঁর ব্যবসায়ীক জ্ঞানের প্রতিযোগী একমাত্র তিনি নিজেই। একদল ইঞ্জিনিয়ার এবং ডেভেলপারকে এক লক্ষ্যে চালিত করতে তাঁর জুড়ি মেলা ভার’, বলেন NextEV এর প্রতিষ্ঠাতা এবং চেয়ারম্যান উইলিয়াম লি।‘প্রযুক্তির প্রতি তাঁর আবেগ এবং জনজীবনে তার সদর্থক প্রভাব NextEV এর মূল ভাবধারার সঙ্গে মিলে যায়। অটোমোটিভ, সফটওয়ারের সেরা প্রতিভাদের নিয়ে NextEV এর টিম। ইউসার এক্সেপেরিয়ান্স ডোমেনও রয়েছে’, বলেন লি। ‘আমরা গ্রাহকদের হাতে বিশ্বমানের পণ্য তুলে দিতে সেরা প্রযুক্তি ব্যবহার করব’, তাঁর সংযোজন।

ওয়ারিয়র বলেন, NextEV এ যোগ দেওয়ার জন্য মুখিয়ে রয়েছেন তিনি। প্রযুক্তির মাধ্যমে বড় বড় সমস্যা মেটাতে সবসময় সুযোগ খুঁজছেন। ‘আবহাওয়ার বদল এবং বাতাসের মান গ্লোবাল চেঞ্জে সবচেয়ে বড় চিন্তার কারণ। আমার মনে হয়, বৈদ্যুতিন গাড়ি তাতে খানিকটা সুরাহা দেবে’, বলেন পদ্মশ্রী। তাঁর উপলব্ধি, ‘মোবাইল ইন্টারনেটের যুগে নতুন প্রযুক্তির মাধ্যমে NextEV বৈদ্যুতিন গাড়িকে মানুষের জন্য উপভোগ্য করে তুলবে। এই যাত্রার সঙ্গে থাকতে পেরে আমি গর্বিত’। সিলিকন ভ্যালিতে যেকজন ক্ষমতাবান হাই প্রোফাইল মহিলা এক্সিকিউটিভের নাম আসে তাদের মধ্যে একজন অবশ্যই পদ্মশ্রী। ফোর্বসের ১০০ জন ক্ষমতাবান মহিলাদের তালিকায় ছিল তাঁরও নাম। তিনি আইআইটি দিল্লি এবং কোমেল ইউনিভার্সিটির প্রাক্তনী। নানা ধরনের পুরস্কার প্রাপ্তি প্রায় নিয়ম হয়ে দাঁড়িযেছে তাঁর জন্য।

NextEV এর প্রেসিডেন্ট মার্টিন লিচ বলেন, যেহেতু গাড়ি শিল্পে প্রতিনিয়ত পরিবর্তন আসছে, ফলে স্মার্ট টেকনোলজিতে বৈদ্যুতিন গাড়িই হতে চলেছে ভবিষ্যৎ। তাঁর সংযোজন, পদ্মশ্রীর অভিজ্ঞতা এবং দৃষ্টিভঙ্গি সংস্থাকে সাহায্য করবে পরবর্তী প্রজন্মের জন্য উন্নত পণ্য নিয়ে আসতে। NextEV এর বোর্ডে আসার পাশাপাশি পদ্মশ্রী বর্তমানে মার্কিন পোশাক সংস্থা গ্যাপ এবং মাইক্রোসফটে কাজ করছেন।

অনুবাদ-তিয়াসা বিশ্বাস

Related Stories