বাংলাদেশ তাকিয়ে আছে ইসমাত জাহানের দিকে

1

বাংলাদেশি কূটনীতিক ইসমাত জাহান এবার OIC-র গুরুদায়িত্ব সামলাবেন। তুলনায় রক্ষণশীল সংস্থা হিসেবে পরিচিত Organization of Islamic Cooperation এবার প্রথম কোনও মহিলাকে গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব দিতে চলেছে। মুসলিম দেশগুলির সর্বোচ্চ আন্তর্জাতিক এই সংস্থার মহাসচিব আইয়াদ আমিন মাদানির বিশেষ অনুরোধে ইউরোপিয়ান ইউনিয়নে তাদের পার্মানেন্ট অবজারভার হবেন ইসমাত।  ৪ বছরের জন্য ব্রাসেলসেই থেকে যাচ্ছেন বাংলাদেশের মহিলা এই কূটনীতিক। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতির স্নাতকোত্তর, পরবর্তী সময়ে টাফ্টস বিশ্ববিদ্যালয়ের ফ্লেচার স্কুল এবং হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের কৃতি এই কূটনীতিককে নিয়ে বাংলাদেশের গর্বের অন্ত নেই। রাষ্ট্রসংঘের Committee on Elimination of Discrimination against Women (CEDAW)-এর সদস্য পদে ২০১৪ সালে দ্বিতীয়বারের মতো নির্বাচিত হন। কূটনীতিক হিসেবে ৩৪ বছরের ক্যারিয়ার জাহানের। এবছরই ব্রিটেনের রাষ্ট্রদূত হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু নতুন এই দায়িত্ব পাওয়ায় ব্রিটেন যাচ্ছেন না তিনি। বরং ইউরোপিয়ান ইউনিয়নে থেকে বাংলাদেশের হয়ে কূটনৈতিক মধ্যস্থতা করার কাজটা করে যেতে পারবেন তিনি। বাংলাদেশের স্বার্থ রক্ষায় এর আগে যথেষ্ট যোগ্যতার পরিচয় দিয়েছেন। বিশেষ করে বাংলাদেশি পণ্য ইউরোপের বাজারে যাতে সমস্যায় না পড়ে সেদিকে যারপর নাই লড়াই করেছেন ইসমাত। বিশেষত রানা প্লাজা অগ্নিকাণ্ডের ঘটনার পর বাংলাদেশের গারমেন্ট শিল্প যাতে মার না খায় সেদিকটিও দারুণ বুদ্ধিমত্তার সঙ্গে সামাল দিয়েছেন তিনি। এবার দেখার মুসলিম বিশ্বের প্রতিনিধি হিসেবে তিনি কী কূটনৈতিক ক্যারিশমা দেখান। সন্ত্রাসে সন্ত্রাসে জেরবার বাংলাদেশ এখন তাকিয়ে আছে সে দিকেই।

(Source: sheershareport)