মায়ের মুখে মিষ্টি দিতে দ্যুতিমানদের Calcutta Delights

5

মিষ্টি খেতে কে না ভালোবাসে! কিন্তু ডাক্তারের বারণ আছে বলে মিষ্টি খাওয়ার লোভটা অনেককেই সংবরণ করতে হয়। যেমন করতে হয়েছিল দ্যুতিমান ভট্টাচার্যের মাকে। দীর্ঘ কুড়ি বছর ভদ্রমহিলা মিষ্টি দাঁতে কাটেননি। ছেলের মনে এর একটা বড় প্রভাব ছিল।

মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ার দ্যুতিমান তার বাল্যকালের তিন বন্ধুকে নিয়ে খুলে ফেললেন একটা স্টার্টআপ। ক্যালকাটা ডিলাইটস। চারজনই অঙ্কে ভালো। তাই সামনে সমস্যা দেখলেই সমাধানে ঝাঁপিয়ে পড়তে একপায়ে খাঁড়া। বাকিরা দিব্যাঙ্ক সাহা, জিত কর্মকার এবং স্নিগ্ধা মাঝি। উচ্চমাধ্যমিকের পর সবাই ছড়িয়ে ছিটিয়ে গিয়েছিলেন। আবার এই স্টার্টআপই ওদের এক করেছে।

২০১৬র সেপ্টেম্বরে তড়িঘড়ি এই স্টার্টআপ তৈরি করে ফেলেন দ্যুতিমানেরা। লজিস্টিক স্টার্টআপ। আপনার পছন্দের মিষ্টি ওদের ওয়েবসাইটে অর্ডার করলেই আপনার দরজায় পৌঁছে দেবে ক্যালকাটা ডিলাইটস। একদম প্রতিযোগিতাহীন বাজার নয়। অন্য কয়েকটি সংস্থা একই কাজ করলেও এই সেগমেন্টে এখনও অনেকটাই ফাঁকা জায়গা রয়েছে। এবং অনলাইন ব্যবসার অবকাশ দিনে দিনে বাড়ছে। ফলে একরকম বাজার ওরা ধরেও ফেলেছেন, বলছিলেন দ্যুতিমান। তারওপর মেন্টর হিসেবে পেয়েছেন কলকাতা ভেঞ্চারসের প্রতিষ্ঠাতা অ্যাভেলো রায়কে। তার পরামর্শও কাজে লেগেছে বলে মনে করেন দ্যুতিমান।

কীভাবে সংস্থা তৈরি হল সেই কথা বলতে গিয়ে দ্যুতিমান বললেন, দুর্গাপুরে ন্যাশনাল ইন্সটিটিউট অব টেকনোলজির হস্টেলের জীবনের একটা টুকরো। সেখানেই প্রথম মিষ্টি তৈরির পরিকল্পনা মাথায় আসে। হস্টেলের রান্নাঘরে তখন মিষ্টি তৈরি করতেন ওরা। খেতেন সেখানকার পড়ুয়ারাই। ব্যাপারটা বেশ ভালোই চলেছিল।

পরে কলকাতায় ফিরে আসার পর শুরু হয় এই ব্যবসা। দ্যুতিমান বলছিলেন, মায়ের কথাটাই মাথায় ঘুরছিল। এটাই সেই প্রবলেম যা সল্‌ভ্‌ করতে যুক্তিবাদী মনটা এই স্টার্টআপ তৈরির পরিকল্পনায় সায় দেয়।

প্রথম থেকেই সুগার ফ্রি মিষ্টি তৈরি করার ইচ্ছে ছিল। কিন্তু এখুনি ওরা প্রোডাক্ট তৈরি করছেন না। এবং বিজনেস টু বিজনেস সেক্টরেই ব্যবসা করতে চাইছেন। বেশ কয়েকটি ক্লায়েন্টও পেয়েছে ক্যালকাটা ডিলাইটস যারা নিয়মিত অর্ডার দিচ্ছে। ব্র্যান্ডটা এখন একটু একটু করে পরিচিত হয়ে উঠছে। শহরের বড় বড় মিষ্টান্ন বিক্রেতার সঙ্গে গাঁটছড়া বেঁধে দিব্যি চলছে ওদের স্টার্টআপ। আগামী ২০ বছরে অনলাইন মার্কেট প্লেস হিসেবে গোটা দেশকে মিষ্টিমুখ করাবে ক্যালকাটা ডিলাইটস।

Related Stories