'উইগজো'-তে বিনিয়োগ অরিন ক্যাপিটাল পার্টনার্স-এর

0

দিল্লির এন্টারপ্রাইজ মার্কেটিং অটোমেশন স্যুট উইগজো-তে তিন কোটি টাকা বিনিয়োগ করলেন অরিন ক্যাপিটাল পার্টনার্স এবং মনিপাল গ্লোবাল এডুকেশন,টিভি-র চোয়ারম্যান মোহনদাস পাই। এই ফান্ডিং রাউন্ডে অ্যাডভান্ট-এজ পার্টনার্স, সিঙ্গাপুর অ্যাঞ্জেল নেটওয়ার্ক, সচিন ভাটিয়া, কুণাল খট্টর, অক্ষয় গর্গ-এর মতো অনেকেই অংশগ্রহণ করেছিলেন।

সংস্থার সদস্যসংখ্যা বৃদ্ধি এবং মোবাইল, ই-মেল এবং ওয়েব-এ ডেলিভারি চ্যানেল তৈরীতে এই বিনিয়োগ কাজে লাগানো হবে। এই মুহূর্তে ইওরোপ-এর তিন এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের একটি সহ মোট ৩৪টি ক্লায়েন্ট আছে এই সংস্থার। গত অর্থবর্ষে ২,৫০,০০০ টাকার বেশি ব্যবসা করেছেন তাঁরা, দাবি 'উইগজো'-র। এই দফার বিনিয়োগের পর বিশেষ কিছু ক্ষেত্র যেমন মেশিন-লার্নিং কমিউনিকেশন, মার্কেট পেনিট্রেশন এবং নিজেদের SaaS মডেলের মতো বিষয়গুলিতে বিশেষভাবে নজর দিতে চায় এই সংস্থা।

উমের মহম্মদ, হিমাংশু কৌশিক, শমেল তৈয়াব এবং বিক্রান্ত খুশু প্রতিষ্ঠিত এই সংস্থা একটি এন্টারপ্রাইজ মার্কেটিং অটোমেশন স্যুট যা প্রোপ্রাইটারি মেশিন লার্নিং অ্যালগরিদমস-এর উপর ভিত্তি করে প্রস্তুত। বিভিন্ন ব্র্যান্ড এবং সংস্থাকে একটি ড্যাশবোর্ড থেকে একাধিক চ্যানেলের মাধ্যমে যোগাযোগ যেমন - ই-মেল পুশ, ব্রাউজার পুশ, ফেসবুক এবং গুগল এ সিঙ্গল অ্যাডের মতো পরিষেবা দিয়ে থাকে 'উইগজো'। সংস্থার সিইও উমের মহম্মদ জানালেন,

"বড় সংস্থাগুলি তাদের গ্রাহকদের জন্য ডেটা-ড্রিভেন অ্যাপ্রোচের মাধ্যমে দারুণ সব এনগেজমেন্ট চ্যানেল প্রস্তুত করেছে। আমরা ছোট-বড় সব অনলাইন ব্যবসাকে সেই পরিষেবা দিতে চাই। আমাদের প্রযুক্তি ব্যবহার করে তাঁরা গ্রাহকদের আরও কাছাকাছি পৌঁছতে পারবেন।"

এই বিনিয়োগের আগে আউটবক্স ভেঞ্চার্স-এর নিকুঞ্জ জৈন এবং রীতেশ মালিক-এর কাছ থেকে ১লক্ষ ডলার বিনিয়োগ পেয়েছিল 'উইগজো'।

মোহনদাস পাই-এর তরফে বিনিয়োগকারী প্রণব পাই জানালেন,

"যেভাবে নতুন মোবাইল অর্থনীতিতে বিভিন্ন সংস্থা এবং ব্র্যান্ড প্রতিযোগিতা করছে তাতে গ্রাহকদের সঙ্গে একাধিক মাধ্যমে যোগাযোগ কোনও সংস্থাকে অন্য সংস্থার চেয়ে আলাদা করে তুলতে সাহায্য করবে। নিজের সংস্থার গ্রাহকদের সঙ্গে যোগাযোগের মাধ্যমে ব্র্যান্ডের নির্ভরযোগ্যতা তৈরী হয় এবং যেসব মাল্টি-চ্যানেল স্ট্র্যাটেজি কাজের ক্ষেত্রে রিয়্যাল-টাইম অ্যানালিটিক্স ব্যবহার করে সেগুলি ব্যবহার করা সবচেয়ে সুবিধাজনক। আমরা নতুন নতুন ভারতীয় সংস্থা যারা এই ক্ষেত্রে কাজ করছে তাদের সঙ্গে কাজ করতে চাই এবং সেই কারণেই উইগজো-র কাজে উৎসাহ প্রকাশ করেছি।"

বিশ্ববাজারে স্টার্ট আপগুলির জন্য মার্কেটিং অটোমেশন একটি দারুণ সুযোগ। পরিসংখ্যান বলছে, বিশ্বজুড়ে মার্কেটিং অটোমেশন বাজারের মোট মূল্য ১০.৫ বিলিয়ন ডলার। প্রাথমিকভাবে 'উইগজো'-র প্রতিযোগীদের মধ্যে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের কাহুনা এবং বুমট্রেনের মতো সংস্থা রয়েছে। সংস্থার দাবি, APAC রিজিওনে 'উইগজো'-ই একমাত্র মেশিন লার্নিং কমিউনিকেশনস সাইট।


লেখা - জয় বর্ধন

অনুবাদ - বিদিশা ব্যানার্জী