KONSTRUCT'16-য় তরুণ উদ্যোগীদের হিপ হিপ হুররে...

0

কনস্ট্রাক্ট ২০১৬। দু দিনের "Only Open Source" ফেস্ট। কলকাতায় এরকম ফেস্ট খুব বেশি হয়নি। একেবারেই হয়নি বললে অত্যুক্তি হবে। তবে সচরাচর কলেজের ফেস্ট বলতে যা বোঝায় তার থেকে শতহস্ত দূরে ছিল এই উদ্যোগ। মাত্র তের দিনের পরিকল্পনায় এরকম একটা ফেস্টের আয়োজন করে রীতিমত সাড়া ফেলে দিয়েছে সল্টলেকের মৌলানা আবুল কালাম আজাদ ইউনিভার্সিটি অব টেকনোলজি। মুখে মুখে যাকে বলে মাকাউট। এক সময়ের ওয়েস্ট বেঙ্গল ইউনিভার্সিটি অব টেকনোলজিকে এখন এই নামেই চেনে কলকাতা। ২৭ এবং ২৮ ফেব্রুয়ারি এখানেই রমরমিয়ে হয়ে গেল এবছরের কনস্ট্রাক্ট। শহর এবং শহরের আশপাশের ৩৬ টি কলেজের ছাত্রছাত্রীরা এই ফেস্টে অংশগ্রহণ করে। হ্যাকাথন, সুডোকু প্রতিযোগিতা, দাবা প্রতিযোগিতা, কবিতা পাঠ এসব তো ছিলই পাশাপাশি ছিল আরও অনেক কিছু।

প্রধান আয়োজক টেকনিকাল এডুকেশন কোয়ালিটি ইম্‌প্রুভমেন্ট প্রোগ্রাম। তবে ইউনিভার্সিটির ছাত্ররাই এই ফেস্টের মূল উদ্যোক্তা। ১২ জন তরুণ তুর্কিকে নিয়ে তৈরি হয়েছিল কোর টিম। ওরাই ছিল এই উদ্য়োগের মূল চালিকা শক্তি। সকলেই ছাত্র। আবার ওদের মধ্যে অনেকেই উদ্যোগপতিও। তাই রনদীপ, প্রিয়াংশু, অর্কপাল, আদিত্য, ধীরাজ, সাগ্নিক, সুপর্ণা, পঙ্কজরা এই দুটো দিনেই গোটা কলকাতাকে বুঝিয়ে দিয়েছে এই শহরের যৌবন শুধু চাকরি করতেই লেখা পড়া শেখে না। বরং লেখা পড়া শিখে অপরের কর্মসংস্থানের কথা ভাবে।

ফেস্টের মিডিয়া পার্টনার হিসেবে সঙ্গী ছিল টেলিগ্রাফ পত্রিকা এবং রেডিও পার্টনার ছিল ফ্রেন্ডস এফএম। ভালো কাজে সঙ্গীর অভাব হয় না। তাই ওপেন সোর্স কমিউনিটির অন্যতম প্রধান ইন্সপিরেশন Mozilla ছিল এদের সঙ্গে, ছিল Duck Duck Go, Scrollback-এর মত সংস্থা। এই ফেস্টেই আত্মপ্রকাশ করল Theorex নামের এটি একটি শিক্ষা সংক্রান্ত স্টার্টআপ। ফেস্টের সামাজিক পার্টনার হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সমাজসেবী সংস্থা Treasures of Innocence এর প্রতিষ্ঠাতা রানি ভবানি।কেন আন্ত্রেপ্রেনিওরশিপ জরুরি এবং কিভাবেই বা একজন সাধারণ মানুষ আন্ত্রেপ্রেনিওর হয়ে উঠতে পারেন তা নিয়ে বক্তব্য রাখতে এসেছিলেন ন্যাসকম টেন থাউসেন্ড স্টার্টআপ অয়্যারহাউসের প্রতিনিধি রবি রঞ্জন। ব্লগ লেখার খুঁটি নাটি নিয়ে একটি সেশনে উপস্থিত ছিলেন কনটেন্ট ডেভলপমেন্ট সংস্থা কানেক্ট ইন্ডিয়ার কর্ণধার শুভাশিস চট্টোপাধ্য়ায়। উদ্যোগপতিদের মুখ থেকেই উদ্যোগ নেওয়ার থ্রিল কেমন হয়, কী কী সমস্যার মধ্যে দিয়ে একজন উদ্যোগপতিকে যেতে হয় এসব নিয়েও একটি সেশন ছিল এই ফেস্টে। আন্ত্রেপ্রেনিওরস ভাইব শীর্ষক এই সেশনের সহযোগী আয়োজক ছিল ইওর স্টোরি বাংলা। সেশনটি সঞ্চালনা করেন ইওরস্টোরি বাংলার ডেপুটি এডিটর হিন্দোল গোস্বামী। এই সেশনটিতে উপস্থিত ছিলেন বিভিন্ন স্টার্টআপ সংস্থার প্রতিষ্ঠাতারা। এসেছিলেন Crafts Nation এর কর্ণধার শঙ্খ রায়, SweetHandi.com এর কর্ণধার এবং অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা অভিরূপ বন্দ্যোপাধ্যায়। দুজনেই জানালেন তাঁদের উদ্যোগপতি হওয়ার সফরে দেখে আসা অলি গলি রাজপথের অভিজ্ঞতা। ছাত্রদের ভিতর থেকেও ঝিকিয়ে উঠল ভবিষ্যতের বেশ কয়েকটি উদ্যোগপতি।

একটি ছাত্র তো বলেই বসলেন, রিস্ক না নেওয়ার রিস্ক সে নেবে না... ফলে সে একবার চেখে দেখবেই ঝুঁকির ঝাঁঝ। আবার প্রিয়াংশু বললেন তাঁকে ইতিমধ্যেই উদ্যোগ নেওয়ার পোকা কামড়ে দিয়েছে... অনেক কষ্টে নিজের সঙ্গে লড়াই করছেন, খুব ইচ্ছে করছে উদ্যোগ নিতে। তবে শুধু স্টার্টআপ খুলতেই স্টার্টআপ খুলতে চান না। কিছু একটা করে দুনিয়াকে দেখিয়ে দিতেই খুর ঠুকছেন বছর বাইশের ছেলেটা। আর ওর বন্ধু রণদীপ ইতিমধ্যেই রেয়ার প্ল্যানেটের কর্ণধার আমাদের বলছিলেন কিভাবে এগোচ্ছে ওর সংস্থা। ইতিমধ্যে দেশের সীমা ছাড়িয়ে বিদেশেও টাই আপ শুরু করে দিয়েছে রনদীপের রেয়ার প্ল্যানেট। আন্ত্রেপ্রেনিউরস ভাইবের সেশন যত এগোচ্ছিল মনে হচ্ছিল মাকাউটের এই ফেস্ট চিৎকার করে বলছে কলকাতা এবার তুমি কনফিডেন্ট হও। আমরা তোমার পাশে আছি।

Related Stories