বারংবার বাতিল হওয়া জ্যাক মা কেন প্রেরণা!

0
হাভার্ড জ্যাক মাকে বাতিল করেছে দশ-দশবার। আর কেএফসি চিনের বাজারে ঢোকার পরে তাদের সংস্থায় কাজের জন্যে ২৪ জনের সাক্ষাৎকার নেয়। তাঁদের ভিতর ২৩জনই মনোনীত হন। বাতিল হয়েছিলেন একমাত্র জ্যাক মা।

এরপরের ঘটনা এখন ইতিহাস। আলিবাবার প্রতিষ্ঠাতা জ্যাক মা বলেছেন তাঁর জীবনের ও সংস্থার সাফল্যের কৌশল নিয়ে। তাঁ‌র কথায়, ই-কমার্স সংস্থা আলিবাবার সাফল্যের গুপ্ত রহস্য হল ওই সংস্থায় মহিলাদের কাজে লাগানোটা। বহু মহিলা আলিবাবার কর্মীদলে রয়েছেন। পাশাপাশি, কর্মীদের মনোবল বৃদ্ধি করতে মার্শাল আর্ট তাই চি-এর প্রশিক্ষণও দেওয়া চলছে।

জ্যাক মার কর্মকৌশল নিয়ে লেখকদেরও কৌতূহল বাড়ছে। ইতিমধ্যে প্রকাশিত হয়েছে আলিবাবা নামে একটি বই। কীভাবে নিজে নিজেই বাণিজ্যিক সাম্রাজ্য গড়ে তুলতে কৃতকার্য হলেন জ্যাক, তা দেখানো হয়েছে ওই বইটিতে। লেখকের নাম ডানকান ক্লার্ক। ১৯৯৯ সাল থেকে তিনি মাকে চেনেন। ক্লার্কের লেখা ২৮৭ পৃকষ্ঠার এই বইটি তথ্যমূলক। বইটিতে নয়া প্রজন্মের উদ্যোগপতিদের জন্যে দরকারি কিছু পরামর্শও রয়েছে।

নিজের আইডিয়ার জোরে এখন বিলিওনিয়ার জ্যাক মা। সারা দুনিয়ায় মা দৃষ্টান্ত। শুধু ব্যবসার ক্ষেত্রে নয়, জীবনের ক্ষেত্রেও। কেননা মার জীবনটি অন্যরকম। পরাজয়, অপমান থেকে আকাশছোঁয়া সাফল্যের একটি গল্প। একাধিকবার বাতিল হওয়া লোকটার ঘুরে দাঁড়ানোর উপাখ্যান।

আলিবাবা এমন একটি ই-রিটেইল যেখানে ৪০০ মিলিয়ন ক্রেতা কেনাকাটা সারছেন। এই সংখ্যাটা আমেরিকার জনসংখ্যার চেয়েও বেশি। গত ১৫ বছরে ২৫ বিলিয়ন ডলারের ব্যবসা করেছে আলিবাবা।

জ্যাক মা অবশ্য নিজেকে একশো শতাংশ চাইনিজম্যান বলেই মনে করেন। ১৯৬৪ সালে জন্ম সাড়া জাগানো এই উদ্যোগপতির‌। প্রসঙ্গত, চিনের অভ্যন্তরীণ স্টার্ট আপ আন্দোলনকে জোরালো করতে আলিবাবা স্টার্ট আপগুলিতে বিনিয়োগ করছে বলে খবর।

মার মুখে এক কথা। আজকের দিনটি খুবই নিষ্ঠুর। কালকের দিনটি তার চেয়েও নিষ্ঠুর হবে। কিন্তু তার পরের দিনটি হতে চলেছে সুন্দর। এটাই তার জীবনদর্শন।

Related Stories