আপনার দরজায় কোটিপতি গাড়ির লম্বা লাইন

0
যারা জীবনে স্বপ্ন দেখেন তারা সুন্দর বাড়ি, সামনে পোর্টিকো, একটা বাগান আর দুরন্ত গাড়িরও স্বপ্ন দেখেন। জীবনে দাঁডা়নোর স্বপ্নের সঙ্গে এলোমেলো ভাবে জড়িয়ে থাকে দৌড়বার স্বপ্নও। আপনারও কি দামি গাড়ি চড়ার শখ? এখন কি শুধুই চোখে চোখে চেখে দেখেই আনন্দ পান? রাস্তায় পোর‌শে, মার্সিডিজ দেখলে হাঁ করে তাকিয়ে থাকেন? জানবেন একদিন আপনার গ্যারাজেও দাঁড়িয়ে থাকতে পারে এরকম বিলাসী রথ। আপনার নির্দেশের ইশারায়। তা হলে আজ থেকে টেস্ট ড্রাইভ যদি নাও হয় জেনে নিন কার কোন ফিচার, কোনটার কত দাম। কোটিপতি গাড়ি গুলোকে আপনার জন্যে হাজির করছি বেছে নিন আপনার মডেল।
  • BUGATTI VEYRON HYPERCAR “LA FINALE” Price: More than $2.6 million
  • ASTON MARTIN VULCAN HYPERCAR, Price: $2,300,000
  • MCLAREN 675 LT SUPERCAR, Price: Estimated $600,000

বুগাত্তি ভেরন হাইপারকারটির ডাক নাম 'লা ফিনালে'

২০১৫ সালের জেনেভা মোটর শোতে প্রথম প্রদর্শিত হয় গাড়িটি। বুগাত্তি ভেরনের এটাই ছিল ৪৫০ তম এবং অন্তিম মডেল। তাই নামটি লা ফিনালে রাখা হয়েছে। দাম ভারতীয় মুদ্রায় ১৭ কোটি ৫৫ লক্ষ টাকা। পশ্চিম এশিয়ার ধনকুবেরদের পছন্দের গাড়ি। অনেকগুলি ইউনিট ওখানেই বেশি বিক্রি হয়েছে। ১,১৮৩ হর্সপাওয়ারের গাড়িটি স্পিডোমিটারে শূন্য থেকে ৬১ তুলতে মাত্র আড়াই সেকেন্ড সময় নেয়। ৮ লিটারের ইঞ্জিন। ঘণ্টায় ২৫৪ মাইল দৌড়বার ক্ষমতা রাখে।

অ্যাস্টোন মার্টিন ভালকান একটি হাইপার কার

গাড়ি যাদের স্বপ্নে দৌড়য় তাদের নজরে আছে এই সাড়ে পনের কোটির গাড়িটি। ৮০০ হর্সপাওয়ারের গাড়িটির ৭ লিটারের ইঞ্জিন। ঘণ্টায় ২০০ মাইল ছুটতে পারে। ডিজাইন করা হয়েছে কার্বন ফাইবার আর হালকা মেটাল দিয়ে। রেসের ট্র্যাকে সব থেকে ভালো পারফর্মেন্স যাতে দিতে পারে সে কথা মাথায় রেখেই ডিজাইন করা হয়েছে। সিক্স স্পিড গিয়ার বক্স।

ম্যাকলারেন ৬৭৫ এল টি সুপারকার

১৯৯৭ এফ১ জিটিআর রেসকারের মডেলের মতো করে তৈরি করা হয়েছে এই রেসিং কার। ৩.৮ লিটারের ভি ৮ ইঞ্জিন। ৬৬৬ ব্রেক হর্স পাওয়ার। সংস্থা এই গাড়ির ডিজাইনে এরোডাইনামিক্সের ওপরই বেশি জোর দিয়েছে যাতে গাড়ির সার্বিক ক্ষমতা বাড়ানো সম্ভব হয়। দুর্দান্ত এই গাড়িটি রেসিং ট্র্যাকে অসাধারণ পারফর্মেন্স দেয়। ভারতীয় টাকায় দাম পড়বে চার কোটি সাড়ে চার লাখ। ভারতে আনতে অবশ্য বাড়তি আমদানি শুল্ক গুণতে হবে।

  • LAMBORGHINI SUPERVELOCE (SV) Price: $493,000
  • FERRARI FF Price: $300,000
  • ROLLS-ROYCE WRAITH Price: $294,000 
  • PORSCHE 911 GT3 RS Price: $176,985

ল্যামবোরগিনি সুপার ভেলোস

দাম পড়বে তিন কোটি ৩২ লাখ টাকার কিছু বেশি। ভি-১২ ইঞ্জিন। সাড়ে ছয় লিটারের ইঞ্জিনে ৭৪০ হর্স পাওয়ারের ক্ষমতা। শূন্য থেকে ঘণ্টায় ৬২ মাইলের স্পিড তুলতে সময় নেয় মাত্র ২ দশমিক ৮ সেকেন্ড। ২১৭ মাইল প্রতি ঘণ্টা বেগে দৌড়তে পারে। গাড়িটি রেসিং ট্র্যাকের জন্যে তৈরি হলেও রাস্তার জন্যেও দুর্দান্ত। 

ফেরারি এফ এফ

দুনিয়ার যেকোনও রাস্তার গর্ব হতে পারে ফেরারি। ৬ দশমিক তিন লিটার ভি ১২ ইঞ্জিনের ৬৫১ হর্স পাওয়ারের ক্ষমতা। শূন্য থেকে ঘণ্টায় ৬০ মাইল স্পিড তুলতে ফেরারি এফ এফ এর সময় লাগে মাত্র তিন দশমিক সাত সেকেন্ড। সব গুলো চাকাতেই নিয়ন্ত্রণ আছে। দুটো মানুষের বসার জায়গার থেকে একটু বেশিই জায়গা থাকে এই গাড়িতে। একটি সন্তান এবং স্বামী স্ত্রীর জন্যে এই ছোট্ট গাড়িটার স্বপ্ন দেখতেই পারেন। ভারতীয় টাকায় দাম মাত্র দু কোটি সাড়ে বাইশ লাখ।

রোলস রয়েস ব়্যেইথ

দুনিয়া জোড়া রোলস রয়েসের খ্যাতি। সৌন্দর্যে, গাম্ভীর্যে বিশ্বের সমস্ত রইস লোকদের এক নম্বর পছন্দের গাড়ি। রাস্তায় নামানোর জন্যে রোলস রয়েসের সব থেকে শক্তিশালী গাড়িটি হল ব়্যেইথ। ঘণ্টায় ৬০ মাইলের বেগ তুলতে সময় নেয় মাত্র সাড়ে চার সেকেন্ডেরও কম। ঘণ্টায় ১৫৫ মাইল পর্যন্ত দৌড়তে পারে। আধুনিক প্রযুক্তি আর চিরায়ত গাড়ির ঐতিহ্যের ছোঁয়া দুটোই এই গাড়িতে দেখতে পাবেন। গাড়ির চালক এবং আরোহী উভয়ের আরামের কথাই বেশি ভেবেছে এই গাড়ি নির্মাতা সংস্থা। বিদেশের বাজারে ভারতীয় মুদ্রায় গাড়িটির দাম দু'কোটি টাকার কিছু কম।

পোরশে ৯১১ জিটি৩ আরএস

বিলাসী গাড়ির আলোচনায় পোরশে না থাকলে আলোচনাই যেন অসম্পূর্ণ থেকে যায়। দেখুন ৯১১ জিটি৩ আরএস মডেলটি। পোরশের ব্ৰ্যান্ড নিউ মডেল। ৪ লিটারের ভি ৬ ইঞ্জিন। ৫০০ হর্স পাওয়ারে দৌড়য়। রোলস রয়েসের থেকে কম সময়ে পিক-আপ তোলে। শূন্য থেকে ঘণ্টায় ৬০ মাইল তুলতে সময় নেয় মাত্র ৩ দশমিক এক সেকেন্ড। সর্বোচ্চ স্পিড পাওয়া যাবে ঘণ্টায় ১৯৩ মাইল। দাম এক কোটি কুড়ি লাখ। স্নিগ্ধ সাদা কিংবা হালকা রঙের অনবদ্য রূপকথা আঁকতে আঁকতেই ছোটে পোরশে। রাস্তার কথা মাথায় রেখেই বানানো হয়েছে এই রেসিং ট্র্যাক ফিট গাড়িটি। সৌন্দর্যে রোলস রয়েসের পৌরুষ যেমন মুগ্ধ করে রাখে তেমনি পোরশে লাবণ্য, লাস্য মোহিত করে রাখবেই।

ফলে এরকম যেকোনও একটি গাড়ির স্বপ্ন দেখুন। যার কল্পনা আপনাকে সাফল্যের পথে দ্রুত গতিতে এগিয়ে দিতে পারে।