কোন পণ্যে কত শতাংশ GST জেনে নিন

4

গুড অ্যান্ড সার্ভিস ট্যাক্স বা বহু চর্চিত জিএসটি পয়লা জুলাই থেকে চালু হতে চলেছে। ১২১১ টি আইটেমকে এর আওতাভুক্ত করা হয়েছে। ০ থেকে ২৮ শতাংশ পর্যন্ত কর থাকছে এই সব সামগ্রীর ওপর। তার সঙ্গে বাড়তি সেস দিতে হবে নিষিদ্ধ সামগ্রী এবং বিলাস দ্রব্যের ওপর। এখানে আপনাদের সুবিধার্থে যেগুলির ওপর কর বসছে এমন একটা তালিকা দেওয়া হল।

কোনও কর দিতে হবে না এমন সামগ্রীর তালিকায় রয়েছে ১. কাচা মাছ, কাচা মাংস, মুরগির মাংস, ডিম, দুধ, ঘোল, দই, প্রাকৃতিক মধু, তাজা ফল এবং সবজি। ২. ময়দা, বেসন, পাউরুটি, লবণ, টিপ, সিঁদুর, হাতের চুড়ি, এবং যেকোনও ধরণের প্রসাদ। ৩. স্ট্যাম্প, বিচারবিভাগীয় কাগজ পত্র, প্রকাশিত বই, খবরের কাগজ, হাতে বোনা কাপড়। এছাড়া হাজার টাকার কম ভাড়ার হোটেল এবং লজের বিলে কোনও কর দিতে হবে না। ৪. এছাড়া পাটের সামগ্রীতেও লাগবে না কর।

দশমিক দুই পাঁচ শতাংশ কর দিতে হবে রাফ হীরে কিনলে। ৩ শতাংশ কর দিতে হবে সোনা কিনলে। হাজার টাকার কম দামের পোশাক কিনলে ৫ শতাংশ কর ধার্য হবে। একই পরিমাণ কর দিতে হবে প্যাকেট বন্দি খাবারে, ৫০০ টাকার কম জুতোয়, যেকোনও ধরণের ক্রিম, স্কিমড মিল্ক পাউডার, ব্র্যান্ডেড পনির, বরফে জমানো সবজি, কফি, চা, মশলা, পিৎজার পাউরুটি, রাস্ক এবং সাবুদানার ওপর।

কেরোসিন, কয়লা, ওষুধ, স্টেন্ট, লাইফবোট, ছোট রেস্তোরাঁর বিলে দিতে হবে ৫ শতাংশ জিএসটি। ফিস ফিলে কিনলেও দিতে হবে ৫ শতাংশ। এবং ট্রেন বা প্লেনের টিকিট কাটলেও ওই ৫ শতাংশ জি এস টিই বরাদ্দ হবে।

১২ শতাংশ বরাদ্দ হবে, প্যাকেটে বন্দি বরফে জমানো মাংসে, অ্যানিম্যাল ফ্যাট-এ, সসেজ-এ, মাখনে, চিজে। একই নিয়ম খাটবে ঘি, শুকনো ফল কিংবা নমকিন কিনলেও। ফলের রসের প্যাকেট কিনলেও দিতে হবে ১২ শতাংশ কর। জেনে রাখুন আয়ুর্বেদিক ওষুধেও ১২ শতাংশ ধার্য হয়েছে। একইভাবে টুথ পাউডার, আগরবাতি, রঙিন বই, ছবির বই, ছাতা, সেলাই মেশিন, মোবাইল ফোন, সার এবং হাজার টাকার বেশি দামের জামা কাপড়ে বসছে বারো শতাংশের কর। বিজনেস ক্লাসে এয়ার ট্র্যাভেল যারা করেন তাদের টিকিটের দামের ওপর ওই ১২ শতাংশ কর নেওয়া হবে। পাশাপাশি এয়ার কন্ডিশনড নয় এমন হোটেল যার ভাড়া ১০০০ টাকার বেশি সেক্ষেত্রেও ১২ শতাংশ কর দিতে হবে।

১৮ শতাংশের তালিকায় আছে সেই সব হোটেল যেগুলি এয়ার কন্ডিশনড হোটেল এবং যেগুলিতে মদ পাওয়া যায়। এছাড়া টেলেকম পরিষেবা, তথ্য প্রযুক্তির পরিষেবা কিংবা আর্থিক পরিষেবা গ্রহণের সময় দিতে হবে ১৮ শতাংশ জিএসটি। পাশাপাশি ৫০০ টাকার বেশি দামী জুতো কিনলে দিতে হবে ১৮ শতাংশই। বিড়ি পাতা, সংরক্ষিত সবজি, ইনস্ট্যান্ট ফুড মিক্স, জ্যাম, সস, সুপ, আইসক্রিম, যেকোনও ধরণের বিস্কুট, সুগন্ধি রিফাইন্ড চিনি, পাস্তা, কর্নফ্ল্যাক্স, পেস্ট্রি, কেক, যে কোনও মিনারেল ওয়াটার, টিস্যু, খাম, ট্যাম্পুন, নোটবুক সবেতেই ১৮ শতাংশ করে জিএসটি লাগছে। এছাড়া ইস্পাতের যেকোনও সামগ্রী, প্রিন্টেড সার্কিট, ক্যামেরা, স্পিকার এবং মনিটরের দামের ওপরও থাকছে ১৮ শতাংশের থাবা।

এবার আসি ২৮ শতাংশের কোটায়। মদ, সিগারেট, সিগার, চিউইং গাম, যেকোনও ধরণের গুড়, কোকোয়া ছাড়া চকোলেট, ওয়াফেলস, ওয়েফার কোটেড চকোলেট, পান মশলা, সোডা জাতীয় এয়ারেটেড জল, রঙ, গায়ে লাগানোর ডিওডোরেন্ট, দাড়ি কামানোর ক্রিম, আফটার শেভ, চুলে দেওয়ার শ্যাম্পু, ক্লিপার, রঙ, সানস্ক্রিন, ওয়ালপেপার, সিরামিক টালি, জল গরম করার হিটার, ডিশওয়াশার, ওজন করার মেশিন, কাপড় কাচার মেশিন, ভ্যাকুয়াম ক্লিনর, দাড়ি কাটার যন্ত্র, গাড়ি, মোটর সাইকেল, ব্যক্তিগত প্রয়োজনের বিমান, ফাইভ স্টার হোটেলের পরিষেবা, রেস ক্লাব বেটিং, সিনেমার টিকিট। এই সব ক্ষেত্রে ২৮ শতাংশ জিএসটি দিতে হবে আপনাকে।