গেমচেঞ্জার আন্ডার থার্টি-তে ভরসা রাখুন

0

হয় ভারতীয়, নয় ভারতীয় বংশোদ্ভুত। ফোর্বসের চূড়ান্ত তালিকায় এমন ৪৫ জন অ্যাচিভার রয়েছেন যাদের বয়স তিরিশের কম। এরা কেউ গেমচেঞ্জার, খেলার নতুন নিয়ম এনে ফেলছেন মাঠে। আবার কেউ একেবারে নতুন খেলার আমদানি করছেন নানা ক্ষেত্রে। ফোর্বসের পঞ্চম বার্ষিক থার্টি আন্ডার থার্টির তালিকায় ৬০০ মহিলা এবং পুরুষের নাম রয়েছে যারা আমেরিকার সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ যুব উদ্যোক্তা, সৃষ্টিশীল এবং উজ্জ্বল তারকা। এরাই অন্তত ২০ টি ক্ষেত্রে যেমন কনজিউমার টেকনোলজি, শিক্ষা, মিডিয়া, শিল্প-কারখানা, আইন, সামাজিক উদ্যোগ, বিজ্ঞান এবং শিল্পকলার ধারাটাই নাকি বদলে দিচ্ছেন।

‘আগে যুবকরা পেশাদারিত্বে একেবারেই পঙ্গু ছিল। বুড়ো হওয়া মানে বেশি অভিজ্ঞতা, বেশি জ্ঞান অতএব, বেশি টাকা। এভাবে বেশিদিন চলতে পারে না। যারা প্রযুক্তির এই যুগে বেড়ে উঠছে তারা অনেক বেশি উচ্চকাঙ্খী, উদ্যোগী। যদি সব বদলে দিতে চান, তাহলে তিরিশের নীচের বয়সীরাই তুরুপের তাস’, বলছে ফোর্বস। বছর বাইশের রীতেশ আগরওয়াল, OYO Rooms এর প্রতিষ্ঠাতা এবং সিইও। এমন দেশ যেখানে বাজেট হোটেল চেনের তেমন সুসংহত বাজার নেই, সেখানে সারা ভারতের ১০০ শহরে ২,২০০ ছোট হোটেল নেটওয়ার্ক গড়েছে OYO Rooms, বলছে ফোর্বস। এই ক্ষেত্রে অন্যান্যরা হলেন ২৮ বছরের গগন বিয়ানি এবং নীরজ বেরি, Sprig এর কো-ফাউন্ডার। Sprig হল এক ধরনের মোবাইল অ্যাপ যার মাধ্যমে যে কেউ দ্রুত স্বাস্থ্যকর খাবার পেতে পারেন। ২৫ বছরের করিশমা শাহ। মুনশট ফ্যক্টরি Alphabet’s Google X এর সর্বকনিষ্ঠ কর্মী। হলিউড এবং বিনোদন জগতে ২৭ বছরের কানেডিয়ান লিলি সিং, একাধারে লেখক এবং কৌতুকাভিনেতা। নতুন প্রজন্মের স্টারের তালিকায় রয়েছেন তিনি যারা প্রচারের গ্রাফ উর্দ্ধমুখী করতে ইউটিউব ব্যবহার করেন।

ভারতীয় বংশোদ্ভুতদের তালিকায় বলা যেতে পারে ২৭ বছরের নীলা দাসের কথা, যিনি Citigroup এর ভাইস প্রেসিডেন্ট। মর্ডগেজ বন্ড ট্রেডার হিসেবে প্রতিদিন কয়েক বিলিয়ন পরিমান টাকার নজরদারি করতে হয় তাঁকে। ফিন্যান্সে আরও যারা গুরুত্বপূর্ণ পদে রয়েছেন তাদের মধ্যে রয়েছেন ২৯ বছরের দিব্যা নেত্তিমি, Viking Global Investors এর ইনভেস্টমেন্ট অ্যনালিসিস্ট। এমবিএ করার সময় Harvard Business School এর Alpha Fund ও সামলেছেন। রয়েছেন ২৯ বছরের বিকাশ প্যাটেল Millennium Management এর সিনিয়র অ্যনালিসিস্ট। অন্যদিকে, ২৯ বছরের নীল রাই Caxton Associates এর ইনভেস্টমেন্ট অ্যানালিসিস্ট, যিনি ৬০০ মিলিয়নের ম্যাক্রো হ্যাজ ফান্ড সামলানোর তিনজনের দলে গুরুত্বপূর্ণ একজন।

ভেঞ্চার ক্যাপিটেলে ভারতীয় বংশোদ্ভুতদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলেন ২৬ বছরের বিশাল লুগানি, Greycroft Partners এর একজন শীর্ষপদস্থ এবং New Enterprise Associates এর আরেক শীর্ষপদস্থ ২৭ বছরের অমিত মুখোপাধ্যায়। মিডিয়া স্টাররা হলেন, MSNBC এর স্যোশাল মিডিয়া অ্যান্ড কমিউনিটি ম্যানেজার নিশা চিত্তল এবং NowThis Media এর সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট আশিস প্যাটেল।

শিল্পক্ষেত্রে বলা যেতে পারে ২৮ বছরের সম্প্রীতি ভট্টাচার্যের নাম, যিনি একজন MIT গ্রেড। এমন এক ড্রোন নিয়ে কাজ করেছে তিনি, যেটি জলের তলায় স্বাধীনভাবে কাজ করবে, সমুদ্রে হারানো প্লেন খুঁজবে অথবা কতটা তেল বেরোচ্ছে অথবা জলের তলায় তেজষ্ক্রিয়তা তার পরিমাপ জানায় এই ড্রোন। সামাজিক উদ্যোক্তাদের মধ্যে ২৮ বছরের অনুপ জৈনের কথা বলা যেতে পারে। ভারতে Sanitation and Health Rights এর ডিরেক্টর তিনি। সংস্থার কাজ হল শৌচাগার তৈরি করে দেওয়া, মানুষের বর্জ্য কুড়িয়ে নেওয়া এবং বিষ্ঠা থেকে নিষ্ক্রিত মিথেন দিয়ে পরিশ্রুত জল তৈরি করা।

আইনের ক্ষেত্রে ২৬ বছরের আশিস কামভাতের নাম আসে সবার আগে যিনি Federal Reserve Board এর মিনিটরি পলিসি এক্সপার্ট। ফেসবুকের প্রাইভেসি এবং পাবলিক পলিসি অ্যাডভাইসর ২৭ বছরের দ্বীপায়ন ঘোষও রয়েছেন তালিকার প্রথম দিকে। ২৮ বছরের অনীশা সিং,যার কথা না বললেই নয়। United Sikh এর ইন্টারন্যাশনাল পলিসি ডিভিশনের শীর্ষে ছিলেন। সেখানেই তিনি anti-bullying campaign করেন। ১৯ বছরের এক শিখ যুবক যাকে ROTC programs থেকে ছেঁটে ফেলা হয়েছিল তার জন্য লড়ে মার্কিন সেনার বিরুদ্ধে ঐতিহাসিক মামলা জিতেছিলেন অনীশা। বিজ্ঞানের ক্ষেত্রে ২৯ বছরের সঞ্জম গর্গের কথা বলা যায়, যিনি University of California Berkeley এর অ্যাসিস্ট্যান্ট প্রফেসর।

অনুবাদ-তিয়াসা বিশ্বাস