Flatchat থেকে Unacademy, আকাশ ছুঁতে চান গৌরব মুঞ্জল

0

Flat.to থেকে এখনকার Flatchat-এ পৌঁছনো। কীভাবে হল? ফিরে তাকালে কলেজ জীবনের কথা মনে পড়ে। ঘরভাড়া নেওয়ার জন্য যখনই কোনও বন্ধুকে এক দালালের কাছে পাঠাতাম ১০% কমিশন পেতাম। সেই সময় কলেজ ছাত্রদের ঘর ভাড়া পেতে কালঘাম ছুটে যেত। সেই সমস্যার সমাধানে আমরা নিজেরাই একটা প্ল্যাটফর্ম গড়ে তুললাম। জুহু ও আন্ধেরীতে থাকার ঘর পাওয়ার জন্য ছাত্রছাত্রীদের সহায়তা করতে লাগলাম। ঠিক যেন ম্যাজিক হল! কয়েকমাস পরে আমাদের কলেজে 'গেস্ট টক' দিতে আসে আকৃত বৈশ। তখন তার সঙ্গে আলাপ হয়। সবকথা শুনে আকৃত সঙ্গে-সঙ্গে ফান্ডিংয়ের প্রস্তাব দেয়। কিন্তু সেটা নেওয়া সম্ভব হয়নি। আসলে সেইসময় Directi’তেও কাজের সুযোগ পাই। সেটা হাতছাড়া করা বোকামি হোত। ডিরেক্টিতে এক বছর কাজের অভিজ্ঞতা দারুণ কাজে দেয়। পরবর্তী সময়ে আমি যে সব সংস্থা গড়ে তুলি, সেই অভিজ্ঞতা খুবই কাজে দিয়েছিল।


বছর খানেক পরে Directi ছাড়লাম। হেমেশ এবং আকৃতকে সঙ্গী করে Flat.to শুরু করলাম। কয়েক মাস সেই স্টার্টআপ চালিয়ে বুঝতে পারলাম, যতটা সহজ মনে করছিলাম তা নয়। জীবনে বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ শিক্ষাও পেলাম। দশ মাস চালানোর পরে আমরা ব্যবসাটা CommonFloor-এর হাতে তুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিলাম। তবে অধিগ্রহণ একটা শর্তে। আমাদের স্বাধীনভাবে কাজ করতে দিতে হবে। আমাদের সেই সিদ্ধান্তে অনেকেই খুশি হল না। কেউ বলল, অধিগ্রহণ ভালো নয়, এভাবে বিক্রি না করলেই ভালো করতে। কেউ বলল, দুটো সংস্থাই মিশে যাবে আর তোমরাও স্বাধীনভাবে কাজ করতে পারবে না। লোকে আরও কত কী বলল। কিন্তু আমি সেই সিদ্ধান্ত সঠিক বলেই বিশ্বাস করতাম। কেন? CommonFloor থেকে আমরা যে ধরনের স্বাধীনতা, পরামর্শ পেয়েছি তা না পেলে Flatchat গড়ে উঠত না। সুমিত, ললিত ও বিকাশের সঙ্গে কাজ করাও দারুণ এক অভিজ্ঞতা। এরপরই আমরা সাফল্য পেতে শুরু করলাম।


Flatchat এখন কী অবস্থায় রয়েছে? রিয়েল এস্টেট ক্যাটেগরিতে Flatchat এখন অন্যতম হায়েস্ট রেটেড অ্যাপস। ২ লক্ষেরও বেশি ডাউনলোড হয়েছে। আরও অনেক দেশে আমরা শাখা খুলতে চলেছি। আমাদের যারা প্রতিদ্বন্ধ্বী তারা তো এখন যা তা ভাবে আমাদের নকল করছে। আমাদের এভাবে 'নজর' দেওয়ার জন্য তাদের অবশ্য ধন্যবাদই দিচ্ছি। শেষ পর্যন্ত কয়েকটা জিনিসের বিচার হবেই। কে কত টাকা তুলতে পারল সেটা বড় কথা নয়। সমাজে কে কতটা সাড়া ফেলতে পারল সেটাই আসল।

গত এক বছরে Flatchat-এর সব বিভাগে ছোট-ছোট দুর্দান্ত সব টিম তৈরি করা হয়েছে। এখন নিজেকে পরামর্শদাতার ভূমিকায় সরিয়ে নিলেও একথা কথা ভেবে ভালো লাগে। ফ্ল্যাটচ্যাটকে যে উপযুক্ত হাতে তুলে দিতে পেরেছি এটা আমাকে প্রচুর আত্মবিশ্বাস দেয়। বিশেষ করে সচিন,সুগন্ধা ও অলোকের কথা বলতেই হয়। এমন নয় যে ফ্ল্যাটচ্যাটের সঙ্গে আমার সম্পর্ক শেষ। আমি ছিলাম, থাকবও। তবে রোজ সবকিছু দেখভালের মধ্যে নেই। ছেলে বড় হয়ে গেলে বাবার ভূমিকা যেমন হয় আর কী।

আমি এমন একটা সিদ্ধান্ত কেন নিলাম? তাহলে Unacademy কথাই বলব। ২০১০ সালে যা ইউ টিউবে শুরু হয়েছিল। ভারতে এখন যা অবৈতনিক শিক্ষায় বিপ্লব ঘটিয়ে দিয়েছে। এখনও পর্যন্ত প্রায় এক কোটি ভিডিও ভিউজ। প্রতি মাসে ভিউজের সংখ্যা ১০ লাখ। ভারতে যে সব এডুকেশন চ্যানেল রয়েছে তার মধ্যে অন্যতম সেরা এটা। উচ্চমানের শিক্ষামূলক কনটেন্ট সম্পূর্ণ বিনামূল্যে তুলে দেওয়া হচ্ছে এখানে।

শিক্ষা সম্পর্কীয় বিষয় আমাকে সবসময় নাড়া দেয়। খুব জোরের সঙ্গেই বলতে চাই, আমরা এমন একটা মঞ্চ গড়ে তুলব যা ভারতে শিক্ষার গণতন্ত্রীকরণকে একটা নতুন উচ্চতায় পৌঁছে দেবে। আমি মনে করি উচ্চশিক্ষা যেন সকলের সাধ্যের ও নাগালের মধ্যে থাকে। সেই উদ্যোগেই এমন কয়েকজনের সঙ্গে হাত মিলিয়েছি যারা প্রত্যেকেই নিজের ক্ষেত্রে পারদর্শী। আমি বলব হেমেশ, সচিন ও রোমানের কথা।

লেখা - গৌরব মুঞ্জল