মূল্যবান দ্রব্যাদি খোয়া যাওয়া খুবই কষ্টকর। কিন্তু প্লেনে যাতায়াতের সময় এমন ঘটনা ঘটলে আরও মুশকিল। কারণ এক্ষেত্রে হারানো বস্তু ফেরত পাওয়া প্রায় অসম্ভব। তবে কিছুদিন আগে একজন প্যাসেঞ্জারের একটু অন্যরকম অভিজ্ঞতা হল। তিনি পাঁচ লক্ষ টাকা মূল্যের বিদেশী মুদ্রার একটি ব্যাগ হারিয়ে ফেলেছিলেন। ভদ্রলোক হংকং থেকে আরও ৩১৭ জন প্যাসেঞ্জারের সঙ্গে Air India-র একটি বিমানে দিল্লি এয়ারপোর্টে নামেন। হাত ব্যাগটি প্লেনে ফেলেই নেমে যান। আরেকটি কানেকটিং ফ্লাইটে তাঁর মুম্বাই যাওয়ার কথা ছিল। নিয়ম মাফিক পরিদর্শনে আসেন Air India-র নিরাপত্তা বিভাগের অফিসার সুভাষ চান্দের। ব্যাগটিতে ৬,০৫৬ মার্কিন ডলার আর ১,২৯০ ইউরো মানে ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় ৫.০৬ লাখ টাকা ছিল। সুভাষ ব্যাগটি এয়ারলাইনে জমা দেন আর সঠিক মালিকের কাছে ব্যাগটি পৌঁছে দেওয়া হয়। Air India-র একজন মুখপাত্র জানিয়েছেন, সুভাষকে এয়ারলাইন তাঁর কৃতকর্মের জন্য সংবর্ধনা দিয়েছে। এই প্রথমবার নয়। এমন দৃষ্টান্তমূলক কাজ এর আগেও করেছেন সুভাষ। বিজ্ঞানে স্নাতক এই মানুষটি গত আঠাশ বছর ধরে এয়ার ইন্ডিয়ার সঙ্গে রয়েছেন। সততার সম্মান পেয়েছেন বহুবার। সালটা ২০০৩। সৌদি আরবগামী একটি প্লেন। সুভাষ তাতে প্রায় ১ কিলো ওজনের সোনার গয়না ভর্তি একটি হ্যান্ডব্যাগ খুঁজে পান। যিনি ওই ব্যাগ ফেলে গিয়েছিলেন তাঁকে ফেরত দেওয়া হয়। আরও একটি ঘটনায় উনি সাত-আট লাখ টাকাসহ একটি ব্যাগ পান। সেটিও তার মালিককে ফেরত দেওয়া গিয়েছিল সুভাষেরই জন্য।