মোদির প্রশংসায় গদগদ গেটস

0

সম্প্রতি ভারত ঘুরে গেলেন মাইক্রোসফটের প্রতিষ্ঠাতা ও চেয়ার পার্সন বিল গেটস। আর ভূয়সী প্রশংসা করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র নোদীর। ভারতে সফরে এসে বিল গেটস প্রধানমন্ত্রীর যে সমস্ত সিদ্ধান্তের অকুণ্ঠ প্রশংসা গেলেন তার ভিতর আছে ৫০০, ১০০০ টাকার নোট বাতিলের সাম্প্রতিক সিদ্ধান্ত-সহ আধার কার্ড ও প্রধানমন্ত্রী জন ধন যোজনা চালু করার মতো উদ্যোগগুলি রয়েছে।

একঝাঁক কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর সঙ্গে আলাপচারিতায়ও গেটস ডিজিট্যাল ইন্ডিয়ার লক্ষ্যপূরণে প্রধানমন্ত্রীর প্রয়াসের প্রশংসা করেছেন। ন্যাশনাল ইন্সটিটিউশন অব ট্রান্সফর্মিং ইন্ডিয়া বা এনআইটিআই-এ ট্রান্সফর্মিং ইন্ডিয়া শীর্ষক আলোচনা সভায় নিজের বক্তব্য রাখতে গিয়ে গেটস অনেক কথাই বলেছেন। যেমন তিনি বলেছেন, আগামী সাত বছরের ভিতর ভারতে ডিজিট্যাল অর্থনীতির যুগ শুরু হবে। এর ফলে ভারত বিশ্বসভায় তার মর্যাদার আসনে প্রতিষ্ঠিত হবে।

পাশাপাশি, গেটস জানিয়েছেন, নোট বাতিলের সাম্প্রতিকতম সিদ্ধান্ত সময়োপযোগী বলিষ্ঠ পদক্ষেপ। এর ফলে ধোঁয়াশা কেটে গিয়ে ভারতের অর্থনীতি স্বচ্ছ হয়ে উঠবে বলে মনে করেন গেটস। এ ব্যাপারে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির উদ্যোগের ভূয়সী প্রশংসা করেছেন তিনি। এখানেই থামেননি গেটস। আধার কার্ড প্রকল্প নিয়ে সরকারি দূরদর্শিতার প্রশংসা করেছেন। আধার কার্ড প্রসঙ্গে গেটস মনে করেন, এও অভিনব ধরনের উদ্যোগ।

তাছাড়া, গেটস মনে করিয়ে দিয়েছেন, এবার নাগরিকদের কর প্রদান, ব্যাঙ্ক সম্পর্কিত দরকারি তথ্যাদি কিংবা স্বাস্থ্য সম্পর্কিত তথ্যাদি ডিজিট্যাল ব্যবস্থার আওতাধীন হয়ে পড়বে। আখেরে তাতে সুফলই ফলবে। প্ৰধানমন্ত্রীর জন ধন যোজনার প্রশংসা করে গেটস বলেছেন, এর ফলে ভারতের প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর মানুষজনকেও ব্যাঙ্কিং ব্যবস্থার আওতায় আনা সম্ভব হবে। এক সময়ে ব্যাঙ্কে অ্যাকাউন্ট খুলতে হলে যে পরিমাণ কাগজপত্রের দরকার ছিল তা থেকেও বিরাট মুক্তি মিলেছে। এখনকার ডিজিট্যাল ব্যবস্থায় একটি অ্যাকাউন্ট খুলতে বড়জোর ৩০ সেকেন্ড লাগছে।

এছাড়া, বিল গেটস ভারতকে কিছু মূল্যবান পরামর্শ দিয়েছেন। তাঁর পরামর্শ, অযথা আশঙ্কিত না হয়ে প্রযুক্তিগত উদ্ভাবনগুলিকে দেশের স্বার্থেই ভারতের কাজে লাগানো উচিত। কেননা প্রযুক্তিগত ক্ষেত্রে ইদানীং অতি দ্রুত ইতিবাচক রদবদল ঘটছে। এ ব্যাপারে নিজের আগ্রহের কথা কেন্দ্রীয় মন্ত্রীদের কাছে ব্যক্ত করেছেন গেটস। মাইক্রোসফ্টের প্রতিষ্ঠাতার কাছ থেকে ডিজিটাল ভবিষ্যতের জন্যে যে শুভেচ্ছা বার্তা আসবে তাতো বলাই বাহুল্য।